হাফ সেঞ্চুরি করে ফেললেন ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়। না না, বয়সে নয়, করলেন মেগা সিরিয়ালে! ‘রেশম ঝাঁপি’ ও ‘মায়ার বাঁধন’ এই দুটি মেগায় এখন কাজ করছেন। ‘‘দু’দিন আগে ভাবছিলাম, ১৯ বছরের কেরিয়ারে ক’টা মেগা করেছি। গুনে দেখলাম, ‘মায়ার বাঁধন’ আমার ৫০তম মেগা,’’ গলায় খুশির আবেগ ভাস্বরের।

১৯৯৮-এ ‘কণকাঞ্জলি’তে ছোট্ট একটা চরিত্রে প্রথম পরদায় অভিনয় করেন ভাস্বর। তাঁর দ্বিতীয় সিরিয়াল ‘জন্মভূমি’। ‘‘ওই ধারাবাহিকের ‘বিক্রম’ চরিত্রটা আমাকে রাতারাতি স্টার করে দিয়েছিল। এর পরই তরুণ মজুমদার আমাকে ‘আলো’র অফার দেন। ‘আলো’ আমার ডেবিউ ফিল্ম। ‘জন্মভূমি’র সময় এমন একটা অভিজ্ঞতা হয়েছিল, যা জীবনেও ভুলব না। শ্যুটিং হচ্ছে জলপাইগুড়ি স্টেশনে। দেখলাম, একটা লোকাল ট্রেন স্টেশন ছাড়িয়ে গিয়ে হঠাৎ দাঁড়িয়ে পড়ল এবং ওই ট্রেনের ড্রাইভার এর পরেই আমার দিকে ছুটে এসে বললেন, ‘বিক্রমকে দেখব বলে ট্রেন থামিয়ে দিলাম’। ভাবুন! আজ কথা বলতে গিয়ে এমন অনেক ঘটনা মনে পড়ছে। ‘ইষ্টিকুটুম’-এ প্রথম উকিলের চরিত্রে অভিনয় করেছিলাম। এর জন্য কয়েক জন উকিলের কাছে গিয়ে পরামর্শ নিয়েছিলাম চরিত্রটির জন্য। সিরিয়ালটা দেখে আমার অনেক উকিল বন্ধু বলেছিল, ‘তুই এ বার আমাদের প্রফেশনে চলে আয়’। ‘সাঁইবাবা’র চরিত্রে আমাকে দেখে ভক্তরা এসে ফল মিষ্টি সবজি দিয়ে যেত। এমন ভক্তকুল আর কোনও সিরিয়াল করে পাইনি,’’ হাসতে-হাসতে বললেন ভাস্বর।

অধিকাংশ সিরিয়ালে পজেটিভ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। কিন্তু তাঁর ইচ্ছে, মাঝে মধ্যে নেগেটিভ চরিত্র পেলে মন্দ হয় না। সে ইচ্ছেও পূরণ হল তাঁর ৫০তম সিরিয়াল ‘মায়ার বাঁধন’-এ।
এখানে তিনি নেগেটিভ চরিত্রে অভিনয় করছেন।