মাঝে মধ্যেই তিনি বিভিন্ন জনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন কিংবা সমালোচনার বন্যা বইয়ে দেন। কঙ্গনা রানাউতের এই স্বভাবের সঙ্গে সকলেই পরিচিত। ফের তাঁর নিশানায় রণবীর কপূর এবং আলিয়া ভট্ট। কেন রণবীর-আলিয়াকে ইয়ং অ্যাক্টর বলা হবে, তা নিয়েই আপত্তি কঙ্গনার। একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘‘রণবীর এখন ৩৭ আর আলিয়া ২৭, তা হলে ওদের কেন কম বয়সি অভিনেতা বলা হচ্ছে জানি না! আমার মা ২৭ বছর বয়সে তিন সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন। এরা বাচ্চা, না নির্বোধ কে জানে!’’ এর আগেও রাজনৈতিক বিষয়ে কেন রণবীর কোনও মন্তব্য করেন না, তা নিয়ে অভিনেতাকে একহাত নিয়েছিলেন কঙ্গনা। এ বার তাঁর বক্তব্য, ‘‘এখানে নিজের যৌন জীবন নিয়েও লোকে মন্তব্য করে। ইনস্টাগ্রামে ছবি দেয়। কিন্তু নিজের দেশ সংক্রান্ত কোনও প্রশ্ন করলে বলবে, ‘এটা আমার ব্যক্তিগত বিষয়’। এই সবই তো হয়!’’

কঙ্গনার নিশানায় এ দিন ছিলেন সেন্সর বোর্ডের প্রাক্তন প্রধান পহেলাজ নিহালানিও। তিনি একটি ছবির প্রস্তাব দিয়েছিলেন কঙ্গনাকে। তখন সদ্য ইন্ডাস্ট্রিতে এসে কাজ খুঁজছিলেন অভিনেত্রী। কঙ্গনাকে শুধু একটি রোব গায়ে অডিশন দিতে হয়েছিল। ‘‘কোনও অন্তর্বাসও পরতে দেওয়া হয়নি। ওদের কথাবার্তা শুনে মনে হয়েছিল, গোলমাল আছে। পিঠটান দিয়েছিলাম। ফোন নম্বরও বদলে ফেলি,’’ বলেছেন কঙ্গনা। অনুরাগ বসুর ‘গ্যাংস্টার’ দিয়ে তিনি ডেবিউ করেন বলিউডে।