• চিত্রিতা চক্রবর্তী
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মঙ্গলাচরণ সঙ্গীত সম্মেলন

Shahid Parvez
শাহিদ পারভেজ

Advertisement

রবীন্দ্রসদনে মঙ্গলাচরণ সঙ্গীত সম্মেলনে ঠুমরি পরিবেশন করলেন ঝুম্পা সরকার এবং অবন্তী ভট্টাচার্য। মিশ্র খাম্বাজে ঠুমরি শোনালেন ঝুম্পা। আদ্ধা তালে নিবদ্ধ বন্দিশটি বেশ শ্রুতিমধুর। যদিও ঝুম্পার গলায় বেশ জড়তা ছিল। বোলতান করার সময়ে তবলার সঙ্গে তালমেলেরও খানিক অভাব ছিল। যদিও সামগ্রিক ভাবে উপস্থাপনাটি পরিচ্ছন্ন ছিল। 

কাফি রাগে ঠুমরি শোনালেন অবন্তী ভট্টাচার্য। শিল্পীর গলা বেশ দাপুটে। ঠুমরির মেজাজটিও ভালই রপ্ত করেছেন তিনি। দু’জনে যৌথ ভাবে শোনালেন মিশ্র পিলু রাগে একটি দাদরা। তাঁদের যৌথ পরিবেশনায় অবন্তীর আধিপত্য ছিল অধিক। মধুসূদন বর্মণ এবং গোপাল বর্মণের তবলা আর শ্রীখোলের যৌথবাদন বেশ ভাল লেগেছে। তিনতাল এবং রূপক বাজিয়ে শোনালেন শিল্পীদ্বয়। তাঁদের হারমোনিয়ামে সঙ্গ দিয়েছেন হিরণ্ময় মিত্র। 

তরুণ শিল্পী সাবির খানের সারেঙ্গিবাদন খুবই উপভোগ্য ছিল। তিনি বেছে নিয়েছিলেন পটদীপ এবং মিশ্র শিবরঞ্জনী রাগ। সারেঙ্গির সুমিষ্ট আওয়াজে রাগ দু’টি আবেদনপূর্ণ হয়ে উঠেছিল। তাঁর সহযোগী শিল্পী পরিমল চক্রবর্তীর তবলাবাদনও উপভোগ্য ছিল। 

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

কণ্ঠশিল্পী বিনায়ক তোরভি শোনালেন পুরিয়া কল্যাণ। বিলম্বিত এবং দ্রুত বন্দিশের পরে একতালে নিবদ্ধ সুন্দর একটি তারানা শোনালেন শিল্পী। তাঁর পরবর্তী উপস্থাপনা ছিল রাগ তিলক কামোদ। শোনালেন ঝাঁপতাল, তিনতাল এবং একতালের তিনটি বন্দিশ। উপস্থাপনা সমাপ্ত করলেন একটি ভজন শুনিয়ে। 

যৌথ ভাবে সেতার ও বেহালা বাজিয়ে শোনালেন শাহিদ পারভেজ এবং অতুলকুমার উপাধ্যায়। ইমন রাগে তিনতালের একটি গৎও শোনালেন। আলাপটি চমৎকার বাজিয়েছেন শিল্পীদ্বয়। শাহিদ পারভেজের সেতারবাদন বরাবরই একটি ধ্রুপদী আমেজ তৈরি করে দেয়। মিড়ের সূক্ষ্ম টানে সেতারবাদন অন্য মাত্রা পায়। এ দিনও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি। 

অতুল উপাধ্যায়ের বেহালা মন্দ লাগেনি। শিল্পীদের তবলায় সহযোগিতা করেছেন অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন