Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
Travel

ল্যাপটপ থেকে গ্যাজেট, জামা-জুতো এক ব্যাগেই! বেড়াতে যাওয়ার আগে কী ভাবে গোছাবেন?

বেড়াতে যাওয়ার সময়ে যত হাল্কা থাকা যায়, ততই ভাল। কিন্তু জিনিসপত্র ধরাতে গিয়েই হয়ে যায় সমস্যা। তবে কয়েকটা পদ্ধতি অনুসরণ করলে এক ব্যাগেই ভরা যাবে সব।

বেড়াতে যাওয়ার আগে কী ভাবে গোছাবেন ব্যাগ?

বেড়াতে যাওয়ার আগে কী ভাবে গোছাবেন ব্যাগ? ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৮ মে ২০২৪ ২০:৩৯
Share: Save:

বেড়ানোর গন্তব্য যেখানেই হোক না কেন, খুব জরুরি হল, জরুরি জিনিস গুছিয়ে নেওয়া। এই গোছ-গাছ করাটা যে একটা শিল্প অনেকেই তা বোঝেন না। যাঁরা বোঝেন, তাঁরা এক ব্যাগেই গুছিয়ে ফেলতে পারেন এক সপ্তাহের জরুরি জিনিস।

খুব সহজ কয়েকটি পদ্ধতি অনুসরণ করলে একটা ট্রলিতেই ভরে ফেলা যাবে ল্যাপটপ থেকে জামা, জুতো থেকে ক্যামেরা।

১. প্রথমেই বেছে নিতে হবে রুকস্যাক না ট্রলি? কেউ রুকস্যাকে স্বচ্ছন্দ, কারও কাছে বেড়াতে গিয়ে ট্রলি নেওয়া সুবিধাজনক। যদি পাহাড়ি এলাকা হয় এবং থাকার জায়গার জন্য সিঁড়ি দিয়ে উঠতে হয়, তা হলে অবশ্যই রুকস্যাক সুবিধাজনক। তবে তেমন কোনও বিষয় না থাকলে ট্রলিও চলতে পারে।

২. জামা-কাপড় বেছে নেওয়া ও ভাঁজ করা, এ ক্ষেত্রে খুব গুরুত্বপূর্ণ। জায়গা কমাতে জিন্‌স বা অন্য কোনও প্যান্টের সঙ্গে ম্যাচ করে একাধিক টি-শার্ট, শার্ট ও টপ বেছে নেওয়া যেতে পারে। প্রথমে জিন্‌স রেখে তার মধ্যে ২-৩টি টি-শার্ট এবং মোজা একসঙ্গে রেখে দিতে হবে। তার পর নীচের অংশ থেকে গোল করে ঘুরিয়ে ভাঁজ করে ফেলতে হবে। এতে প্যান্ট-জামা ও মোজার শেট একসঙ্গে থেকে যাবে। পাশাপাশি এ ভাবে ভাঁজ করলে জায়গা কম লাগবে। একই ভাবে টি-শার্ট বা অন্য পোশাকও ভাঁজ করে নিতে হবে।

শীতের জায়গায় গেলে গরমের পোশাক খুবই জরুরি। জ্যাকেট নিলে তা সুন্দর ভাবে গুছিয়ে নিতে হবে। তা হলেই কিন্তু জায়গা অনেকটা কমিয়ে ফেলা যাবে।

৩. প্রতিটি জিনিসের জন্য আলাদা ‘পাউচ’ বা ছোট ছোট ব্যাগের ব্যবস্থা করে নিলে সুবিধা হবে। অন্তর্বাস, মেকআপ, শৌচালয়ের জিনিস, জরুরি গ্যাজেটস, ব্যাঙ্কের কার্ড, ওষুধ সব আলাদা ভাবে ছোট ব্যাগে ভরা থাকলে জিনিস খুঁজে পেতেও সুবিধা হবে।

৪. জায়গা বাঁচাতে প্রসাধনী থেকে সাবান, শ্যাম্পু সমস্তই ছোট ছোট কৌটোয় ভরে নিতে হবে। বেড়াতে যাওয়ার জন্য এমন অনেক ধরনের ছোট ছোট কৌটো, ক্রিম রাখার জন্য সিলিকনের টিউব এখন খুব সহজেই পাওয়া যায়। এ ভাবে প্রসাধনী গুছিয়ে নিলে তা যেমন পড়ে যাওয়ার ভয় থাকবে না, তেমনই জায়গাও বাঁচবে।

৫. ল্যাপটপ নিতে হবে অবশ্যই ভাল মানের প্যাডেড ল্যাপটপ কভারে। তার পর তা ব্যাগ বা ট্রলিতে ভরতে হবে। কারণ, আঘাত থেকে ওই কভার ল্যাপটপকে সুরক্ষা দেবে।

৬. ক্যামেরা থাকলে লেন্সগুলিকে আঘাত থেকে বাঁচাতে উলের টুপির মধ্যে নেওয়া যেতে পারে। এতে টুপিও ভরা হবে আবার জায়গাটাও ব্যবহার করা যাবে। একসঙ্গে ক্যামেরা ও লেন্সের জন্য ‘ওয়াটার প্রুফ’ ছোট ব্যাগ রাখাটাও জরুরি। যাতে বৃষ্টিতে ভিজে না যায়।

৭. জুতোও নিতে হবে আলাদা ব্যাগে। জুতোর মধ্যে ভরে ফেলা যায় মোজা। এতেও বাঁচবে জায়গা।

সব জিনিস আলাদা ভাবে গুছিয়ে নিলে দেখা যাবে রুকস্যাক হোক বা ট্রাভেল ট্রলি, এত রকমের জিনিস খুব সহজেই এদিক-ওদিক করে ভরে নিতে অসুবিধে হবে না। জায়গা বাঁচাতে কিছু হুক কিনে নেওয়া যায়। যা লাগিয়ে ব্যাগ থেকে ঝোলানো যাবে জলের বোতল-ও।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Travel Travel Tips
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE