Advertisement
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
WB Education

বিএড বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘অচলাবস্থা’, কলেজের অনুমোদন বাতিল, ধোঁয়াশায় শিক্ষার্থীরা

‘বাবা সাহেব আম্বেদকর এডুকেশন ইউনিভার্সিটি’র বাইরে বিক্ষোভ, আন্দোলন।

প্রতিবেদন: প্রচেতা, সম্পাদনা: সৈকত

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৯:১৩
Share: Save:

রাজ্যের বিএড বিশ্ববিদ্যালয় বাবা সাহেব আম্বেদকর এডুকেশন ইউনিভার্সিটিতে ‘অচলাবস্থা’। প্রথমে দু’শোর বেশি কলেজের অনুমোদন বাতিল। আর তার অভিঘাতেই গ্রুপ ডি পদে কর্মরতদের চাকরি নিয়ে ‘টানাটানি’। কলেজে ভর্তি হয়েও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রেশন না পেয়ে সংশয়ে শিক্ষার্থীরা! এ দিকে অডিয়ো বার্তায় ‘হুমকি’ পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটে তালা ঝুলিয়ে বেনজির দৃষ্টান্ত স্থাপন উপাচার্য সোমা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। যার সমালোচনায় খোদ সরকার। কেন এগজিকিউটিভ কাউন্সিলের বৈঠক না করেই এতগুলো কলেজের অনুমোদন বাতিল করা হল, প্রশ্ন কোর্ট অ্যান্ড কাউন্সিল সদস্য অধ্যাপক মনোজিৎ মণ্ডলের। সোমবার আম্বেদকর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের সঙ্গে দেখা করে সরকারি তরফে নিজেদের অভিযোগ জানিয়ে এসেছেন তিনি। সঙ্গে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচর্য তথা ‘কোর্ট মেম্বার’ মিতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যে ভাবে ঘণ্টাখানেকেরও বেশি সময় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে দাঁড়িয়ে থাকতে হল, তাতে ‘অপমানিত’ বোধ করেছেন অধ্যাপক মনোজিৎ মণ্ডল। সংবাদমাধ্যমে তাঁর বক্তব্য, “উপাচার্য নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে রেজিস্ট্রারের সঙ্গে কথা বললাম। ইসি বৈঠক না করেই কেন কলেজগুলোর অনুমোদন বাতিল করা হল? উপাচার্য সরকারকে ধোঁয়াশায় রাখছেন।” শিক্ষার্থীদের অনুরোধ, উপাচার্য যেন শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যতের কথা ভাবেন। অন্যদিকে উপাচার্যের বক্তব্য, যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের পোর্টাল অনুযায়ী অনলাইনেই সব কিছু হওয়ার কথা, সেখানে কেন শিক্ষার্থীরা অফলাইনে ভর্তি হলেন। তাঁর আরও বক্তব্য, বিশ্ববিদ্যালয় তো এখন খুলেই দেওয়া হয়েছে। সোমা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশ্ন, এরপরও বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে আন্দোলন করার কারণে পঠনপাঠনের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে না?

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE