Advertisement
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Kunal Ghosh

হঠাৎ চাকরি-ধর্নায় কুণাল ঘোষ! তৃণমূল মুখপাত্রের দিকে উড়ে এল জুতো, ‘চাকর’ বলে কটাক্ষ কৌস্তভের

শনিবার বিকেলে এসএলএসটি চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনের ১০০০ দিনে গান্ধীমূর্তির নীচের ধর্নামঞ্চে হঠাৎই হাজির হন তৃণমূল কংগ্রেসের কুণাল ঘোষ। তাঁর ধর্নামঞ্চে যাওয়াকে কটাক্ষ করেছেন কংগ্রেস নেতা কৌস্তভ বাগচী।

প্রতিবেদন: রিঙ্কি, সম্পাদনা: সুব্রত

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৯:০০
Share: Save:

শনিবার এসএলএসটি নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলনের ১০০০ দিন পূর্ণ হল। এ দিন গান্ধীমূর্তির নীচে ধর্নামঞ্চে নিজেদের মাথা মুড়িয়ে প্রতিবাদ জানানোর কর্মসূচি নিয়েছিলেন বিক্ষোভকারীরা। যার প্রতিক্রিয়ায় তৃণমূলের বর্ষীয়ান সংসদ সৌগত রায় বলেছিলেন, “নাটক চলছে।” এ দিন অন্য বেশ কিছু বিক্ষোভকারীর সঙ্গে নিজের মাথা মুড়িয়ে ফেলেন এক মহিলা চাকরিপ্রার্থী রাসমণি পাত্রও। সেই খবর পেয়ে ধর্নামঞ্চে আসেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক তথা মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। তাঁকে দেখেই ‘চোর চোর’ স্লোগান ওঠে। কুণালকে লক্ষ্য করে ছোড়া হয় এক পাটি জুতোও। তার পরে কুণাল দেখা করেন আন্দোলনকারীদের সঙ্গে। তিনি বলেন, “আলোচনা থেকেই সমাধানের পথ আসে। আন্দোলন তো পালিয়ে যাচ্ছে না। গণতান্ত্রিক দেশে আন্দোলন করার অধিকার সকলের রয়েছে।” তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য,“ নিয়োগ নিয়ে জট খুলুক। আজ যখন রাসমণি চুল বিসর্জন দিচ্ছেন, তখন মনে হয়েছে অফিসে কথা না বলে ওঁদের সঙ্গে এসে দেখা করে যাই।” কুণালের এ ভাবে ধর্নামঞ্চে আসাকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি কংগ্রেস নেতা কৌস্তভ বাগচী। ধর্নামঞ্চে বসেই তাঁর প্রশ্ন, “সরকারের প্রতিনিধি কোথায়? চাকর-বাকর এসে লাভ হবে না। মালিক-মালকিনকে আসতে হবে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE