Advertisement
৩০ মার্চ ২০২৩

বদলি রুখতে অবরোধ

স্বাস্থ্যকেন্দ্র সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় ২৫ বছর ধরে ওখানে রয়েছেন অশোকবাবু। এ দিন পুরুলিয়ার বান্দোয়ানে তার বদলির নির্দেশ আসে।

থমকে যানবাহন। গুসকরায় ২বি জাতীয় সড়কে। নিজস্ব চিত্র

থমকে যানবাহন। গুসকরায় ২বি জাতীয় সড়কে। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
গুসকরা শেষ আপডেট: ২০ জুলাই ২০১৮ ০৭:৩০
Share: Save:

শিক্ষক, চিকিৎসকের বদলি আটকানোর দাবি উঠেছে বারবার। এ বার এক ফার্মাসিস্টের বদলি রুখতে জাতীয় সড়ক অবরোধ হল গুসকরায়। বৃহস্পতিবার বিকেল চারটে থেকে সোয়া সাতটা পর্যন্ত ২বি জাতীয় সড়ক অবরোধে যান চলাচল পুরোপুরি বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। ভোগান্তিতে পড়েন বহু যাত্রী। দু’দিকে কয়েক কিলোমিটার পর্যন্ত গাড়ি দাঁড়িয়ে পড়ে। শেষে আউশগ্রাম ১-এর বিডিও চিত্তজিৎ বসু, গুসকরার পুরপ্রধান বুর্দ্ধেন্দু রায় ও পুলিশ আধিকারিকদের প্রতিশ্রুতিতে অবরোধ ওঠে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক বলেন, ‘‘সরকারি নির্দেশ মানা সরকারি কর্মচারিদের কর্তব্যের মধ্যেই পড়ে।”

Advertisement

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গুসকরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের ওই ফার্মাসিস্ট, অশোক হাজরার বদলির নির্দেশ আসে বৃহস্পতিবার। খবর পেয়েই ইটাচাঁদা এবং পাশাপাশি এলাকা থেকে কয়েকশো বাসিন্দা জড়ো হয়ে যান ওই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। পরে স্বাস্থ্যভবন থেকে পাঠানো নির্দেশ প্রত্যাহারের দাবিতে চারটে নাগাদ স্কুল মোড়ের কাছে ২বি জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন তাঁরা। এলাকার মহিলারা রাস্তার উপরে বসে পড়েন। অবরোধকারীদের সঙ্গে থাকা ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আফসোনা বেগম, শেখ তাজমিরা, সেলিম চৌধুরী, মীর ফজলুর রহমানেরা বলেন, ‘‘ওই ফার্মাসিস্ট সব সময় এলাকার মানুষের পাশে থাকেন। রাতবিরেতে পরিষেবা দেন। স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসক না থাকলে ওষুধও দেন। এমনকি, গরিবদের বিনা পয়সাতেও অনেক সময়েই ওষুধ দেন। আমাদের ভরসা উনিই।’’ বদলির নির্দেশ না তুলে নেওয়া বলে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ারও হুঁশিয়ারি দেন তাঁরা।

স্বাস্থ্যকেন্দ্র সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় ২৫ বছর ধরে ওখানে রয়েছেন অশোকবাবু। এ দিন পুরুলিয়ার বান্দোয়ানে তার বদলির নির্দেশ আসে। সম্প্রতি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসক না থাকাকালীন চিকিৎসা করা নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে। স্বাস্থ্যভবন থেকে উচ্চ পর্যায়ের এক প্রতিনিধি দলও গুসকরায় তদন্তে আসেন। তারপরেই এই নির্দেশ।

অশোকবাবু যদিও এ দিন অভিযোগ নিয়ে কিছু বলতে চাননি। তাঁর দাবি, ‘‘বদলির নির্দেশ পেয়েছি। এত দিন এখানে কাজ করছি। যতটা সম্ভব স্থানীয় মানুষজনের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.