×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

স্কুলকে এক লক্ষ টাকা দান অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের

নুরুল আবসার
বাগনান ১১ ডিসেম্বর ২০২০ ০৬:৪৬
চেক তুলে দিচ্ছেন শক্তিপদবাবু। — নিজস্ব চিত্র

চেক তুলে দিচ্ছেন শক্তিপদবাবু। — নিজস্ব চিত্র

তিনি শিক্ষকতার চাকরি থেকে অবসর নিয়েছেন গত ২৯ ফেব্রুয়ারি। তবে, অবসরকালীন পাওনা হাতে পেয়েছেন খুব সম্প্রতি। তা থেকে এক লক্ষ টাকা স্কুলকে দান করে দিলেন বাগনানের মুগকল্যাণ হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক শক্তিপদ বসু। যাতে স্কুলের পদার্থ বিজ্ঞানের ল্যাবেরটরির উন্নতি হয়।

শক্তিপদবাবু এই স্কুলে পদার্থ বিজ্ঞানের শিক্ষক হিসাবে যোগ দেন ১৯৮৪ সালে। টানা ৩৬ বছর এই স্কুলেই শিক্ষকতা করেছেন। বৃহস্পতিবার স্কুলে এসে পরিচালন সমিতির সভাপতি পার্থ ঘোষালের হাতে এক লক্ষ টাকার চেক তুলে দিয়ে শক্তিপদবাবু বলেন, ‘‘পদার্থ বিজ্ঞানে ল্যাবরেটরির প্রয়োজন অনেক বেশি। এটা আমি প্রতি পদে অনুভব করি।’’

যে টাকা শক্তিপদবাবু দান করেছেন, তার মধ্যে ৫০ হাজার টাকা ল্যাবরেটরির উন্নতিতে খরচ হওয়ার কথা। এ কথা জানিয়ে প্রধান শিক্ষক বলেন, ‘‘স্কুলে ৮টি ল্যাবরেটরি আছে। বিভিন্ন সময়ে কিছু সরকারি টাকা পেয়েছি। কিন্তু তাতে এগুলির পুরোপুরি আধুনিকীকরণ সম্ভব নয়। শক্তিপদবাবুর দেওয়া টাকা আমাদের খুব কাজে লাগবে।’’

Advertisement

বাকি ৫০ হাজার টাকা ব্যাঙ্কে রাখার কথা বলেছেন শক্তিপদবাবু। এই টাকার সুদে প্রতি বছর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পদার্থ বিজ্ঞানে স্কুলের সেরা ছাত্রকে স্কলারশিপ দেওয়া হবে। শক্তিপদবাবু বলেন, ‘‘দীর্ঘ শিক্ষকতার জীবনে দেখলাম কত মেধাবী ছাত্র স্রেফ টাকার অভাবে উচ্চ শিক্ষা পেল না। এই টাকায় যদি একজন গরিব মেধাবী ছাত্রেরও উপকার হয়, খুশি হব। এই স্কুল আমাকে দু’হাত ভরে অনেক কিছু দিয়েছে। বিনিময়ে যৎসামান্য ফিরিয়ে দিলাম।’’

শক্তিপদবাবু থাকেন উলুবেড়িয়ার লতিবপুরে। দুই ছেলেমেয়ে ডাক্তারির ছাত্র। স্ত্রী ইন্দিরা গৃহবধূ। স্বামীর এই কাজে খুশি ইন্দিরাদেবী বলেন, ‘‘এই টাকা শিক্ষার উন্নতিতে কাজে লাগবে এটাই তো বড় কথা।’’ স্কুল সভাপতি পার্থবাবু বলেন, "শক্তিপদবাবু একটা নজির সৃষ্টি করলেন। স্কুলের উন্নতিতে সকলের এগিয়ে আসা উচিত। অন্য শিক্ষকেরা অনুপ্রাণিত হবেন।’’

Advertisement