Advertisement
২১ জুন ২০২৪

নোট-মুদ্রার হাত ধরে অতীতকে ফিরে

প্রদর্শনীতে আছে বিজয়নগর সাম্রাজ্যের মুগ ডালের আকারের স্বর্ণমুদ্রা, মালয়েশিয়ার নৌকার আকারের মুদ্রা, ইউক্রেনের ডলফিন আকৃতির কয়েন, গুরু নানকের ছবি-সহ পাকিস্তান, নেপাল, ভারতের স্মারক কয়েন এবং সুলতান ও মুঘল যুগের বেশ কয়েকটি মুদ্রা।

বিভিন্ন সময়কালের মুদ্রা। নিজস্ব চিত্র

বিভিন্ন সময়কালের মুদ্রা। নিজস্ব চিত্র

আর্যভট্ট খান 
কলকাতা শেষ আপডেট: ২২ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:০১
Share: Save:

নৌকার মতো, বুলেটের মতো, ডলফিনের মতো, কোনওটি আবার ধুলোয় মিশে থাকা দানার মতো— এ সবই হল আসলে কয়েনের এক একটি আকার! শুক্রবার থেকে কলকাতা মুদ্রা পর্ষদ আয়োজিত বালিগঞ্জ পার্কের হলদিরাম ব্যাঙ্কোয়েট হলে শুরু হওয়া মুদ্রার প্রদর্শনীতে রয়েছে সে সবই। যা চলবে আজ, রবিবার পর্যন্ত।

প্রদর্শনীতে আছে বিজয়নগর সাম্রাজ্যের মুগ ডালের আকারের স্বর্ণমুদ্রা, মালয়েশিয়ার নৌকার আকারের মুদ্রা, ইউক্রেনের ডলফিন আকৃতির কয়েন, গুরু নানকের ছবি-সহ পাকিস্তান, নেপাল, ভারতের স্মারক কয়েন এবং সুলতান ও মুঘল যুগের বেশ কয়েকটি মুদ্রা।

দীর্ঘ বছর ধরে মুদ্রা সংগ্রহ করছেন কলকাতা মুদ্রা পর্ষদের সেক্রেটারি তথা মুদ্রা সংগ্রাহক রবিশঙ্কর শর্মা। তাঁর কথায়, ‘‘দেশের বিভিন্ন প্রান্তে মুদ্রার কোনও প্রদর্শনী হলে সেখানে পৌঁছে যাই। কয়েন, নোট কিনে নিজের সংগ্রহ বাড়াই।’’ প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে রোমানিয়ার ১৯১৭ সালের নোট, যাকে বিশ্বের ক্ষুদ্র নোটগুলির একটি বলে গণ্য করা হয়। এমনকি বছর দুয়েক আগে বাতিল হওয়া ৫০০ টাকার ভারতীয় নোটও রয়েছে ওই প্রদর্শনীতে।

কলকাতা মুদ্রা পর্ষদের সদস্য শৌভিক মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‘দেশ-বিদেশ থেকে এসেছেন অনেক মুদ্রা সংগ্রাহক। বিকেলে এক দিকে কয়েন এবং মুদ্রার নিলামও হচ্ছে।’’ আমদাবাদ থেকে প্রদর্শনীতে এসেছেন মুকেশ পটেল। তাঁর সংগ্রহে রয়েছে ১৯১৭ সালের এক টাকার নোট।

এই সব কয়েন ও নোট দেখতে উৎসাহীরা ভিড় করছেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Coin Note Exhibition Ballygunge
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE