Advertisement
১৮ জুন ২০২৪
South Dum Dum

জমা জলে ভাসছে দক্ষিণ দমদমের প্রতিশ্রুতি

ডেঙ্গির আতঙ্কও পিছু ছাড়ছে না দক্ষিণ দমদমের বাসিন্দাদের। পুর এলাকায় ডেঙ্গি আক্রান্ত ইতিমধ্যেই ৩৫০ ছাড়িয়েছে। যদিও পুরসভার দাবি, ডেঙ্গির ঊর্ধ্বমুখী লেখচিত্র কিছুটা কমেছে।

প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ০৬:৪৯
Share: Save:

প্রায় অন্তিম লগ্নে চালিয়ে ব্যাট করা শুরু করেছে বর্ষা। জায়গায় জায়গায় জমে থাকছে বৃষ্টির জল। আর সেই জলেই ভাসছে দক্ষিণ দমদম পুর প্রশাসনের প্রতিশ্রুতি। ওই পুর কর্তৃপক্ষ আগেই আশ্বাস দিয়েছিলেন, কোথাও যাতে জল না জমে, সে দিকে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এর উল্টো প্রমাণ মিলছে চলতি বর্ষায়।

স্কুলের ভিতরে থই থই করছে বৃষ্টির জল। সেই জল পেরিয়ে যাতায়াত করছেন শিক্ষিকা ও পড়ুয়ারা। দক্ষিণ দমদম পুর এলাকার এস কে দেব রোডের পাতিপুকুর গার্লস হাইস্কুলের মতোই বিভিন্ন ওয়ার্ডের নিচু জমি-সহ একাধিক জায়গায় জল জমার প্রবণতা দেখা যাচ্ছে।

সব মিলিয়ে ডেঙ্গির আতঙ্কও পিছু ছাড়ছে না দক্ষিণ দমদমের বাসিন্দাদের। পুর এলাকায় ডেঙ্গি আক্রান্ত ইতিমধ্যেই ৩৫০ ছাড়িয়েছে। যদিও পুরসভার দাবি, ডেঙ্গির ঊর্ধ্বমুখী লেখচিত্র কিছুটা কমেছে।

কিন্তু, সতর্ক থাকতে স্কুলের উপরের তলে ক্লাস করানো, আশপাশ পরিচ্ছন্ন রাখায় নজর দেওয়া হচ্ছে বলে দাবি বেশির ভাগ স্কুল কর্তৃপক্ষের। কিছু স্কুল নির্দেশ জারি করেছে, যাতে পড়ুয়ারা হাত-পা ঢাকা পোশাক পরে আসে। পাতিপুকুর গার্লস হাইস্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, আগেও তাঁদের স্কুলে জল জমেছিল। খবর দেওয়ায় পুরসভা পাম্প চালিয়ে জল বার করে দিয়েছিল। ফের বৃষ্টিতে জল জমেছে। অভিভাবক ও শিক্ষিকারা দাবি করেছেন, নিকাশির সমস্যার কারণেই জল জমে থাকছে।

দক্ষিণ দমদম পুরসভার চেয়ারম্যান পারিষদ (স্বাস্থ্য) সঞ্জয় দাসের দাবি, জমা জলের সমস্যা নিয়ে সচেতন পুর প্রশাসন। তবুও নজরদারি বাড়ানো হচ্ছে। ওই স্কুলে জল জমার সমস্যা বিশদে জানালে পুরসভার তরফে আবারও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Monsoon Waterlogged
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE