Advertisement
০১ মার্চ ২০২৪
Balurghat

সোমবার বাংলা বন্‌ধের ডাক আদিবাসী সংগঠনের

গত ৭ এপ্রিল দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে তপন ব্লকের তিন আদিবাসী মহিলাকে প্রকাশ্য রাজপথে দণ্ডি কাটিয়ে শাসক দলে যোগদান করানোর অভিযোগ ওঠে।

এই ঘটনার প্রতিবাদেই বন্‌ধের ডাক।

এই ঘটনার প্রতিবাদেই বন্‌ধের ডাক।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বালুরঘাট শেষ আপডেট: ১৫ এপ্রিল ২০২৩ ০৭:৫৩
Share: Save:

আদিবাসী মহিলাদের দণ্ডি-কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত তৃণমূল নেত্রী প্রদীপ্তা চক্রবর্তীকে গ্রেফতারের দাবিতে আগামী সোমবার (১৭ এপ্রিল) বাংলা বন্‌ধের ডাক দিল ‘আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান’। শুক্রবার দুপুরে দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে সে কথা ঘোষণা করেন ‘আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযান’-এর উত্তরবঙ্গ জ়োনের সভাপতি মোহন হাঁসদা। তিনি জানান, সোমবার সকাল ৬টা থেকে সন্ধে ৬টা অবধি ১২ ঘণ্টার বাংলা বন্‌ধ ডাকা হয়েছে। এ দিন দণ্ডি-কাণ্ডে মূল অভিযুক্ত তৃণমূলের সদ্য প্রাক্তন মহিলা সংগঠনের জেলা সভাপতি প্রদীপ্তা চক্রবর্তীকে গ্রেফতারের দাবিতে সাংসদ তথা বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার জাতীয় তফসিলি জনজাতি কমিশনের চেয়ারপার্সনকে চিঠি দেন। মূল অভিযুক্ত প্রদীপ্তাকে আড়াল করতে পুলিশ ওই কাণ্ডের সঙ্গে সম্পর্কহীন দু’জনকে গ্রেফতার করেছে বলেও কমিশনের কাছে অভিযোগ করেছেন সুকান্ত। বালুরঘাট শহরের বাড়িতে গিয়ে এ দিন প্রদীপ্তার দেখা মেলেনি। ফোন ধরেননি। জবাব দেননি মেসেজের। বিষয়টি নিয়ে মন্তব্য করতে চাননি জেলা পুলিশ সুপার রাহুল দে-ও।

জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র জয়ন্ত দাস অবশ্য বলেন, ‘‘ব‌ন্‌ধ করে কোনও লাভ হয় না। তা ছাড়া, অভিযুক্তকে আড়াল করার প্রশ্নই আসে না। ইতিমধ্যে দণ্ডি-কাণ্ডের ঘটনা অন্যায় হয়েছে এবং দোষীদের বিরুদ্ধে প্রশাসনকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে বলে দলের অবস্থান স্পষ্ট করা হয়েছে।’’

গত ৭ এপ্রিল দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে তপন ব্লকের তিন আদিবাসী মহিলাকে প্রকাশ্য রাজপথে দণ্ডি কাটিয়ে শাসক দলে যোগদান করানোর অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনায় গোটা আদিবাসী সমাজকে অপমান ও কলঙ্কিত করা হয়েছে বলে দাবি তুলে ইতিমধ্যে বালুরঘাটে জেলা পুলিশ এবং প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও, বিক্ষোভ-মিছিল, পথসভা করেছে ছ’টি আদিবাসী সংগঠনের যৌথ মঞ্চ। বিজেপির পক্ষ থেকে ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে আন্দোলন হয়। বালুরঘাটের ওই আন্দোলনে শামিল ছিলেন সাংসদ তথা বিজেপির সর্ব ভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সাংসদ তথা রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার প্রমুখ।

সুকান্ত এ দিন বলেন, ‘‘পুরো ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে আড়াল করতে পুলিশ নিষ্ক্রিয় রয়েছে। আমি সে জন্য এ দিন তফসিলি জনজাতি কমিশনের চেয়ারপাসর্নকে চিঠি পাঠিয়েছি।’’ তপনের বিজেপি বিধায়ক বুধরাই টুডুর দাবি, তিনি ব্যক্তিগত ভাবে পুলিশের কাছে প্রদীপ্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানালেও, পুলিশ সেটিকে মান্যতা না দিয়ে অন্য অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা করেছে। জেলা পুলিশের কর্তারা এ ব্যাপারে মন্তব্য করেননি।

পক্ষান্তরে, দলের অনুমোদন ছাড়াই ৭ এপ্রিল বালুরঘাটের জেলা কার্যালয়ে ওই দলবদলের কার্যসূচি হয় বলে দাবি করেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি মৃণাল সরকার ও প্রবীণ নেতা তথা রাজ্যের মন্ত্রী বিপ্লব মিত্র। ওই ঘটনার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্ত প্রদীপ্তাকে তৃণমূলের মহিলা সংগঠনের জেলা সভাপতি পদ থেকে সরিয়ে দেয় তৃণমূল।

তবে ‘সেঙ্গেল অভিযান’-এর জেলা সভাপতি বিভূতি টুডুর দাবি, ‘‘ঘটনায় মূল অভিযুক্ত তৃণমূল নেত্রী প্রদীপ্তা চক্রবর্তীকে মামলা থেকে আড়াল করার চেষ্টা হলে ধারাবাহিক আন্দোলন হবে। তাঁকে গ্রেফতারের দাবিতে আগামী সোমবার বন্‌ধ ডাকা হয়েছে।’’ আদিবাসী নেতা মোহন হাঁসদার দাবি, তাঁদের ডাকা বন্‌ধের আবেদনে অন্য একাধিক আদিবাসী সংগঠন সাড়া দিয়েছে। আদিবাসী সেঙ্গেল অভিযানের পুরুলিয়ার জ়োনাল সভাপতি গণেশচন্দ্র মুর্মুও এ দিন বলেন, “বালুরঘাটে তিন আদিবাসী মহিলাকে যে ভাবে প্রকাশ্যে রাস্তায় এক কিলোমিটার দণ্ডি কাটানো হয়েছে, তাতে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে। এই ঘৃণ্য কাজে জড়িতদের আইনি শাস্তি দিতে হবে।”‌

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE