Advertisement
০৯ ডিসেম্বর ২০২২

তৃণমূলে ছাত্রদ্বন্দ্ব কলেজে, জখম ১২

কলেজে প্রথম বর্ষের ছাত্রভর্তির পরে এ দিন ছিল নথি পরীক্ষার দিন। সেই কারণে টিএমসিপি কলেজ চত্বরে একটি সহায়তা শিবির খুলেছিল। সেখানে কোন গোষ্ঠীর ছাত্ররা বসবেন তা নিয়ে বচসা শুরু হয়।

ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
বালুরঘাট শেষ আপডেট: ০৩ অগস্ট ২০১৭ ০৪:২৪
Share: Save:

ছাত্র সংঘর্ষে রক্তাক্ত হল কলেজ চত্বর। মঙ্গলবার বিকেলে দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুর কলেজের ঘটনা। অভিযোগ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের দু’টি গোষ্ঠীর সংঘর্ষে এ দিন অন্তত ১২ জন জখম হয়েছেন। ছাত্রীদের গায়েও হাত দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

Advertisement

সংঘর্ষে গুরুতর জখম কলেজ ছাত্রসংসদের সহকারী সাধারণ সম্পাদক সুরজিত সরকারকে গঙ্গারামপুর মহকুমা হাসপাতালে এবং আরেক টিএমসিপি নেতা ধ্রুবজ্যোতি মহান্তকে ব্লক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়েছে।

কলেজে প্রথম বর্ষের ছাত্রভর্তির পরে এ দিন ছিল নথি পরীক্ষার দিন। সেই কারণে টিএমসিপি কলেজ চত্বরে একটি সহায়তা শিবির খুলেছিল। সেখানে কোন গোষ্ঠীর ছাত্ররা বসবেন তা নিয়ে বচসা শুরু হয়। সেখান থেকেই ছড়িয়ে পড়ে গন্ডগোল। পরিস্থিতি সামলাতে বিরাট পুলিশ বাহিনী নিয়ে কলেজে যান এসডিপিও। কলেজ ও হাসপাতালে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। কলেজর সাধারণ সম্পাদক রানা সন্ন্যাসী-সহ কয়কজনকে পুলিশ থানায় ধরে নিয়ে গিয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। কোনও পক্ষ থেকে সন্ধে পর্যন্ত থানায় লিখিত অভিযোগ হয়নি।’’

Advertisement

বুনিয়াদপুর কলেজ ছাত্রসংসদে বিপ্লব মিত্র অনুগামী বলে পরিচিত টিএমসিপির ব্লক সভাপতি জয়দীপ কুণ্ডুদের কর্তৃত্ব এখন অনেকটাই আলগা।

বরং জেলাপরিষদের এক কর্মাধ্যক্ষের অনুগামী বলে পরিচিত কলেজ সংসদের সাধারণ সম্পাদক রানা সন্ন্যাসীর কর্তৃত্ব বেশি। রানার অভিযোগ, ‘‘এ দিন প্রথম বর্ষে ভর্তি হওয়া পড়ুয়াদের নথি পরীক্ষার সময় টিএমসিপি ব্লক সভাপতি জয়দীপের নেতৃত্বে ৫০-৬০ জন বহিরাগত কলেজে ঢুকে হামলা চালায়। আগ্নেয়াস্ত্র উঁচিয়ে শিবিরে বসা সংসদ প্রতিনিধিদের বেধড়ক মারতে থাকে। ছাত্রীদেরও গায়ে হাত দেওয়া হয়।’’ যদিও এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন টিএমসিপি ব্লক সভাপতি জয়দীপ কুণ্ডু। তাঁর দাবি, কলেজ ছাত্র সংসদের কিছু প্রতিনিধি ছাত্র ভর্তির নামে টাকা আদায় করছে, এর প্রতিবাদ করাতেই তাঁদের উপর হামলা হয়েছে। গোটা ঘটনা নিয়ে তৃণমূলের জেলা সভাপতির কাছে নালিশ করেছেন জয়দীপবাবু।

তৃণমূল জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র বলেন, ‘‘বুনিয়াদপুরে ভোটের প্রচার নিয়ে দল ব্যস্ত। সেই সুযোগে ছাত্রভর্তির নামে কলেজ ছাত্রদের একটি চক্রের বিরুদ্ধে টাকা লেনদেনের অভিযোগ পেয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ থেকে প্রতিবাদ জানানো গয়। তাতে গন্ডগোল হয় বলে অভিযোগ পেয়েছি।’’

দল থেকে বিতারিত কিছু বহিরাগত প্রাক্তন ছাত্র তোলাবাজির সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে বলে বিপ্লববাবু সন্দেহ প্রকাশ করে জানান, বিষয়টি দেখা হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.