×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ মে ২০২১ ই-পেপার

বকেয়া পাবেন ঝাঁপ বন্ধ ডানলপের কর্মীরা 

নিজস্ব সংবাদদাতা
সাহাগঞ্জ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ০৩:০৬
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে হুগলির সাহাগঞ্জে ডানলপ কারখানার ১৪২০ জন কর্মী তাঁদের বকেয়া টাকা পেতে চলেছেন। মঙ্গলবার এ কথা জানাল, কারখানার কর্মী সংগঠনগুলির যৌথ মঞ্চ। বেতন-সহ যাবতীয় খাতে প্রাপ্য আদায়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছিল তারা। সংগঠনগুলির দাবি, ১৮ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের ডেপুটি অফিসিয়াল লিকুইডেটর এক চিঠিতে জানিয়েছেন, বকেয়া মেটাতে ১৯ কোটি ৪০ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা মিলেছে। তবে সেই অর্থ কবে দেওয়া হবে তার উল্লেখ চিঠিতে নেই।

আইএনটিটিইউসি-র জেলা সভাপতি বিদ্যুৎ রাউত বলেন, সব সংগঠন এক ছাতার তলায় এসে লড়াই করলে কী ফল হয়, ডানলপ তার প্রমাণ। হিসেব চূড়ান্ত করে কর্মীদের হাতে টাকা আসতে অবশ্য আরও কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে। কর্মী সংগঠনগুলির যৌথ মঞ্চের তরফে কারখানার এক কর্মী, জগবন্ধু সাহাকে আদালত নিযুক্ত স্পেশাল অফিসারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার দায়িত্ব দেওয়া হয়। তাঁকেই চিঠি লিখে বকেয়া মেটানোর বিষয়টি জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন: আরও ধনী মুকেশ, আদানি

Advertisement

বহু দিন হল সাহাগঞ্জ কারখানায় উৎপাদন বন্ধ। কর্মীরা বকেয়া মেটানোর দাবিতে আন্দোলন করছিলেন। উৎপাদন বন্ধের পরেই তাঁদের সংগঠনগুলি প্রাপ্য আদায়ে একজোট হয়। আইএনটিউইসি, সিটু এবং আইএনটিটিইউসি যৌথ মঞ্চ গড়ে হাইকোর্টে মামলা করে।

আরও পড়ুন: বিপিসিএলের তদন্তে সিবিআই​

২০১৩ সালেই হাইকোর্টের বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দেন, সংস্থার সম্পত্তি বেচে কর্মীদের টাকা মেটাতে হবে। সেই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে স্পেশাল অফিসার নিয়োগ করা হয়।

শেষ পর্যন্ত

• ডানলপের সাহাগঞ্জ কারখানায় উৎপাদন বন্ধ বেশ কয়েক বছর ধরে।

• কর্মীরা বেতন-সহ বকেয়া টাকা মেটানোর দাবিতে আন্দোলন করছিলেন।

• প্রাপ্য আদায়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করে কর্মী সংগঠনগুলির যৌথ মঞ্চ।

• হাইকোর্ট সেই টাকা মেটানোরই নির্দেশ দিয়েছে।

• ডেপুটি অফিসিয়াল লিকুইডেটর জানিয়েছেন, কর্মীরা পাচ্ছেন ১৯ কোটি ৪০ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা। তা এসেও গিয়েছে।

• ১৪২০ জন কর্মীর গ্র্যাচুইটি, পিএফ, তাঁদের দাবি মতো ক্ষতিপূরণ ইত্যাদি হিসেব করে প্রত্যেকের কত প্রাপ্য, তার ঠিক হবে। তবে এই ১৪২০ জন ছাড়াও কত কর্মীর শুধু পিএফ বকেয়া রয়েছে, সেই বিষয়টিও একই সঙ্গে দেখা হচ্ছে।

• কবে বকেয়া বিলি হবে, তা এখনও জানানো হয়নি।

• সূত্রের খবর, মুম্বইয়ে ডানলপের মালিক পবন রুইয়া গোষ্ঠীর কার্যালয় ও বাড়ি এবং চেন্নাইয়ে ওই গোষ্ঠীর কারখানা বিক্রি করে সাহাগঞ্জের কর্মীদের বকেয়া মেটানো হচ্ছে

সূত্রের খবর, মুম্বইয়ে ডানলপের মালিক পবন রুইয়া গোষ্ঠীর কার্যালয় ও বাড়ি এবং চেন্নাইয়ে ওই গোষ্ঠীর কারখানা বেচেই তা চোকানো হচ্ছে। বকেয়া আদায়ে আইনি লড়াইয়ের পাশাপাশি কর্মীদের একাংশ ‘শ্রমিক কল্যাণ কেন্দ্র’ নামে একটি সংগঠনের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। তার কর্ণধার বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায় এ দিন বলেন, ‘‘সকলে দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করেছেন। এই জয় কর্মীদের। প্রভিডেন্ট ফান্ড ও গ্র্যাচুইটির টাকা বাদেও প্রত্যেকে এককালীন ২৫ হাজার টাকা করে পাবেন।’’

Advertisement