Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৬ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পিএফের ২০,০০০ কোটি লগ্নি শেয়ারে, দাবি মন্ত্রীর

ইটিএফে লগ্নি বাবদ আয় ১৩.৭২% ছুঁয়েছে বলে দাবি করেন দত্তাত্রেয়। তাঁর কথায়, ‘‘এটা খুবই উৎসাহজনক যে, অছি পরিষদ ইকুইটিতে ১৫% লগ্নিতে সায় দিয়েছে।

সংবাদ সংস্থা
হায়দরাবাদ ২৯ মে ২০১৭ ০৪:৩১
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

কর্মী প্রভিডেন্ট ফান্ডে নতুন জমার ১৫% শেয়ার বাজারে লগ্নিতে ইতিমধ্যেই সায় মিলেছে। রবিবার বিষয়টি আরও স্পষ্ট করে কেন্দ্রীয় শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বন্দারু দত্তাত্রেয় দাবি করেন, চলতি ২০১৭-’১৮ অর্থবর্ষে ওই খাতে লগ্নির পরিমাণ দাঁড়াবে ২০ হাজার কোটি টাকা।

আজ এখানে শ্রমমন্ত্রী বলেন, ‘‘শনিবারই এই তহবিলে বাড়তি জমার ১৫% ইকুইটিতে লগ্নির সিদ্ধান্তে সায় দিয়েছে প্রভিডেন্ট ফান্ডের অছি পরিষদ। আগে তা ছিল ১০%। এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ডে (ইটিএফ) তা খাটানো হবে, যার অঙ্ক এ বছরে দাঁড়াবে ২০ হাজার কোটি টাকা।’’ উল্লেখ্য, ২০১৬-’১৭ সালে ওই লগ্নির অঙ্ক ছিল ১৪,৯৮২ কোটি।

ইটিএফে লগ্নি বাবদ আয় ১৩.৭২% ছুঁয়েছে বলে দাবি করেন দত্তাত্রেয়। ডিভিডেন্ড হিসেবেই তহবিলে এসেছে ২৩৪.৮৬ কোটি। তাঁর কথায়, ‘‘এটা খুবই উৎসাহজনক যে, অছি পরিষদ ইকুইটিতে ১৫% লগ্নিতে সায় দিয়েছে। আমরা পিএফ তহবিলের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই বাড়তি আয়ের ব্যবস্থা করতে বদ্ধপরিকর।’’ উল্লেখ্য, অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি শেয়ার বাজারে ১৫% লগ্নির প্রস্তাব আগেই দিয়েছিলেন।

Advertisement

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে প্রথম বার শেয়ার বাজারে আসে প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা। যাত্রা শুরু বাড়তি তহবিলের ৫% লগ্নি দিয়ে। প্রথম বছরে অর্থাৎ ২০১৫-’১৬ সালে শেয়ার বাজারে ঢালা হয় মাত্র ৬,৫৭৭ কোটি টাকা।

এ ছাড়া কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রকের প্রস্তাব ছিল, মূল বেতন ও মহার্ঘ ভাতা মিলিয়ে যাঁরা মাসে ২৫ হাজার টাকা পান, তাঁদের সকলকে পিএফের আওতায় আনা হোক। কিন্তু এই খাতে আর বাড়তি খরচের বোঝা ঘাড়ে নিতে না-চাওয়ায় প্রস্তাবটিতে আপাতত সায় দেয়নি অর্থ মন্ত্রক। তবে এ প্রসঙ্গে দত্তাত্রেয় বলেছেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement