এ বলে আমায় দেখ। ও বলে আমায়! এক দিকে বাড়ছে ডলার। অন্য দিকে তার গুঁতোয় অশোধিত তেলের আমদানি খরচ চড়ছে। ফলে প্রায় রোজই নতুন নজির গড়ছে ডিজেল। দৌড়চ্ছে পেট্রলও।

শুক্রবার ডলার হয়েছিল ৭১ টাকা। সোমবার কলকাতায় পেট্রলের দাম ৩০ পয়সা বেড়ে দাঁড়াল লিটারে ৮২.০৬ টাকা। ৩৯ পয়সা বেড়ে নজির গড়ল ডিজেল। হল লিটারে ৭৪ টাকা। আর এতেই ভোটের মুখে চিন্তা বাড়ছে মোদী সরকারের। আক্রমণ শানাচ্ছেন বিরোধীরা। ক্ষুব্ধ আমজনতাও। যাঁদের পকেটে ছেঁকা লাগছে ইতিমধ্যেই।

রোজ অল্প করে পাল্টায় বলে তেলের দরের আঁচ তেমন বোঝা যায় না। গত বছর ১৬ জুন রোজ দাম বদলের শুরু থেকে তা টানা বাড়েনি। কিছু সময়ে কমেছে। গুজরাত, কর্নাটকে ভোটের সময়ে প্রায় এক মাস করে বদলায়ওনি। কিন্তু সব মিলিয়ে শহরে এক বছর আড়াই মাসে পেট্রল বেড়েছে লিটারে ১৪.০৩ টাকা। ডিজেল ১৭.৩৫ টাকা।

তেল-ছবি

• পেট্রল লিটারে ৮২.০৬ টাকা। ডিজেল ৭৪ টাকা। *

• ১ অগস্ট থেকে পেট্রল বেড়েছে ২.৮৬ টাকা। ডিজেল ৩.৪২ টাকা।

• রোজ দাম বদলের শুরু থেকে পেট্রল, ডিজেলের উত্থান যথাক্রমে লিটারে ১৪.০৩ টাকা ও ১৭.৩৫ টাকা।

ডলারে নজির

• শুধু এ বছরেই টাকার সাপেক্ষে ডলার বেড়েছে ১০%।

• শুক্রবার ১ ডলার ছিল ৭১ টাকা।

আশঙ্কা

• পণ্য পরিবহণের খরচ বাড়লে মাথাচাড়া দেবে মূল্যবৃদ্ধি।

• আরও বাড়তে পারে বাণিজ্য ও চলতি খাতে ঘাটতি।

• কঠিন হবে রাজকোষ ঘাটতি লক্ষ্যমাত্রায় বেঁধে রাখা।

• আগামী দিনে সুদ কমার সম্ভাবনা কমবে।

* সোমবার কলকাতায় ইন্ডিয়ান অয়েলের দর

প্রথম দিকে শুধু বিশ্ব বাজারে চড়া তেলের দামে দেশে দর বাড়লেও, গত কয়েক মাসে তাতে ইন্ধন জুগিয়েছে ডলারের উত্থান। ফলে ১ অগস্ট থেকে সোমবার পর্যন্ত পেট্রল বেড়েছে ২.৮৬ টাকা। ডিজেল ৩.৪২ টাকা।

রবিবার তেলমন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানের দাবি, এ জন্য দায়ী ওপেক ও ডলারের দর বৃদ্ধি। কিন্তু ওয়েস্ট বেঙ্গল পেট্রোলিয়াম ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশনের কর্তা তুষার সেনের প্রশ্ন, কেন এখনও জিএসটিতে তেলকে নিয়ে আসার কথা হচ্ছে না? আর্জি, উৎপাদন শুল্ক কমানো হোক।