• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

চড়ছে পেট্রল, ডিজেল

Oil
প্রতীকী ছবি।

আশঙ্কা মতোই চড়ছে তেল। সোমবার বিশ্ব বাজারে অশোধিত তেলের দাম এক সময়ে ব্যারেলে ৭০ ডলার ছাড়ায়। ভারতেও ছ’দিন ধরে টানা বাড়ছে পেট্রল, ডিজেল। আজ, মঙ্গলবার কলকাতায় ইন্ডিয়ান অয়েলের পাম্পে জ্বালানির দু’টির দর লিটারে বেড়েছে যথাক্রমে ৫ ও ১১ পয়সা। 

সপ্তাহ দুয়েক ধরে বিশ্ব বাজারের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ভারতে বাড়ছিল তেলের দর। গত সপ্তাহে ইরাকের বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানের সেনাকর্তার মৃত্যুর পরে তেলের জোগান নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। সংশ্লিষ্ট মহলের মতে, সব মিলিয়ে আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে সংশয় বাড়ছে। যার আঁচ পড়ছে তেলের দরে।

গত সেপ্টেম্বরে সৌদি আরবে ড্রোন হামলার পরে এখন অশোধিত তেলের দর সব চেয়ে বেশি বেড়েছে। সোমবার তা প্রায় ১% বেড়ে এক সময় দাঁড়ায় ব্যারেলে ৭০.৭৪ ডলার। নতুন বছরের প্রথম ছ’দিনে ওই দাম বেড়েছে প্রায় পৌনে চার ডলার। আর এ বার নতুন করে তৈরি হওয়া উত্তপ্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে পশ্চিম এশিয়ায় তেলের জোগান নিয়ে অনিশ্চয়তা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের। কারণ, বিশ্বের অর্ধেক তেল উৎপাদন করে ওই অঞ্চলের দেশগুলি। আবার বিশ্ব জুড়ে তেলের জোগান দেওয়া জাহাজগুলির পাঁচ ভাগের এক ভাগই যাতায়াত করে ইরানের হরমুজ প্রণালী দিয়ে। ফলে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলে অনিশ্চয়তা তৈরি হলে তার প্রভাব পড়তে পারে সরবরাহে। 

তার উপরে ভারতে তেলের চাহিদার অধিকাংশই মেটে আমদানি করে। যার প্রায় তিন ভাগের দু’ভাগ জোগায় ইরাক, সৌদি আরবের মতো পশ্চিম এশিয়ার দেশগুলি। সরকারি কর্তাদের দাবি, তেলের জোগান এখনই ব্যাহত হওয়ার সম্ভাবনা কম। তবে জ্বালানির দাম বৃদ্ধির আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছেন না তাঁরাও। আর তা হলে আমজনতার পকেট থেকে সরকারি কোষাগার, দামি তেলের ছেঁকা সর্বত্রই পড়ার আশঙ্কা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন