• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ছিনতাইয়ের তদন্তে নেমে ধৃত তিন দুষ্কৃতী

1
প্রতীকী চিত্র।

সোনা বিক্রির প্রলোভন দেখিয়ে ওড়িশার এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ছিনতাই হয়েছিল ৩০ লক্ষ টাকা। সেই ঘটনার তদন্তে নেমে ছিনতাইবাজদের একটি চক্রকে ধরল বারাসত থানার পুলিশ। উদ্ধার হয়েছে ১৫ লক্ষ টাকা। গ্রেফতার হয়েছে চক্রের মূল পাণ্ডা-সহ তিন জন। তাদের নাম আবিদ হোসেন, নুর মহম্মদ ও মুজিবর। বৃহস্পতিবার বারাসত আদালতে তোলা হলে আবিদ এবং নুরের ১৪ দিনের জেল হেফাজত হয়। মুজিবরকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। চক্রের বাকিদের সন্ধানে তল্লাশি চলছে।

পুলিশ জানিয়েছে, বারাসত থানার কাজীপাড়ার জগদীশঘাটায় অফিস খুলে আবিদ কম দামে সোনা বিক্রির প্রলোভন দিত। তারকনাথ শাহ নামে ওড়িশার এক ব্যবসায়ী সোমবার সেই অফিসে আসেন। সোনা কেনাবেচার সময়ে হঠাৎই পুলিশ স্টিকার লাগানো একটি গাড়ি সেখানে আসে। অভিযোগ, গাড়িতে থাকা লোকজন তাঁর থেকে টাকা ছিনিয়ে চম্পট দেয়।

মঙ্গলবার বারাসত থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই ব্যবসায়ী। তদন্তকারী অফিসার সুজিতকুমার দে জানান, পুলিশ স্টিকার লাগানো গাড়ির কথা শুনেই সন্দেহ হয়, এটি পুলিশ সেজে ছিনতাই। তার পরে কাজীপাড়ায় তল্লাশি চালিয়ে ধরা হয় আবিদকে। তাকে জেরা করে খোঁজ মেলে বাকি দু’জনের।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন