Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Presidency University

‘হেনস্থা’, ছাত্রের ইমেল ‘নাক’-কে

নাক-এর কাছে ওই ছাত্রের আরও অভিযোগ, বিভিন্ন ভাবে শিক্ষকদের দ্বারা অন্য পড়ুয়ারা যৌন হেনস্থার শিকার হচ্ছেন। শিক্ষকেরা পড়ুয়াদের ক্রেডিট না দিয়েই তাঁদের ডিসার্টেশন পেপার নিয়ে ব্যবহার করছেন।

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়।

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়। —ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০২৪ ০৫:০৯
Share: Save:

বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁর প্রতি বিভিন্ন শিক্ষাগত হেনস্থা হয়েছে, এমনই অভিযোগ তুলে ‘ন্যাশনাল অ্যাসেসমেন্ট অ্যান্ড অ্যাক্রিডিটেশন কাউন্সিল’কে (নাক) লিখিত অভিযোগ জানালেন প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র। কিছু দিনের মধ্যেই নাক-এর প্রতিনিধিদলের আসার কথা প্রেসিডেন্সিতে। এরই মধ্যে অনমিত্র দাস নামে স্নাতকোত্তরের ছাত্রটি ওই ইমেল করেছেন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার তিনি ইমেলটি করেছেন। অনমিত্রের দাবি, বিষয়গুলি নিয়ে স্টুডেন্টস গ্রিভান্স অ্যান্ড রিড্রেসাল সেলে অভিযোগ জানিয়েও তিনি উত্তর পাননি।

নাক-এর কাছে ওই ছাত্রের আরও অভিযোগ, বিভিন্ন ভাবে শিক্ষকদের দ্বারা অন্য পড়ুয়ারা যৌন হেনস্থার শিকার হচ্ছেন। শিক্ষকেরা পড়ুয়াদের ক্রেডিট না দিয়েই তাঁদের ডিসার্টেশন পেপার নিয়ে ব্যবহার করছেন। অনমিত্রের আরও দাবি, পড়াশোনায় হেনস্থার কারণে গত কয়েক বছরে কয়েক জন পড়ুয়া আত্মহত্যা করেছেন। তবে পুলিশে অভিযোগ করা হয়নি বলেই জানিয়েছেন ওই পড়ুয়া।

প্রেসিডেন্সির ডিন অব স্টুডেন্টস অরুণ মাইতির দাবি, যে ছাত্র এমন সব অভিযোগ করেছেন, তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধিবদ্ধ কমিটিগুলির কাছে অভিযোগ করেননি। ডিন বলেন, ‘‘স্টুডেন্টস গ্রিভান্স অ্যান্ড রিড্রেসাল সেল, ইন্টারনাল কমপ্লেন্টস কমিটি, ইকুয়াল অপরচুনিটি সেল— কোথাও ছাত্রটি অভিযোগ করেননি। নিজের বিষয় ছাড়া আরও যে সব অভিযোগ এনেছেন তিনি, সে সব নিয়েও অন্য কেউ অভিযোগ জানাননি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Presidency University NAAC Student Harassment
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE