লোকাল ট্রেনের ফাঁকা মহিলা কামরা থেকে উদ্ধার হল এক মাস বয়সি একটি শিশুকন্যা। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সন্ধ্যায়, হাওড়া স্টেশনের ছ’নম্বর প্ল্যাটফর্মে।

রেল রক্ষী বাহিনী (আরপিএফ) সূত্রের খবর, ওই ট্রেনের যাত্রীদের থেকে খবর পেয়ে দুই জওয়ান নির্দিষ্ট কামরায় পৌঁছন। তাঁরা গিয়ে দেখেন, বসার আসনে কাঁথা চাপা অবস্থায় কিছু একটা নড়াচড়া করছে। কাঁথা সরিয়ে দেখা যায়, নতুন জামা পরা ফুটফুটে একটি শিশুকন্যা চোখ বন্ধ অবস্থায় হাত-পা নেড়ে খেলছে। দুই জওয়ান শিশুটিকে উদ্ধার করে হাওড়া স্টেশনে নিয়ে যান। সেখান থেকে রাতেই সালকিয়ার হোমে পাঠিয়ে দেওয়া হয় তাকে। প্রাথমিক তদন্তের পরে আরপিএফ জানিয়েছে, শিশুটিকে কেউ ট্রেনে ফেলে পালিয়েছে।

হাওড়া স্টেশনের ছ’নম্বর প্ল্যাটফর্মে কর্ড লাইনের বর্ধমান-হাওড়া লোকাল ট্রেন এসে পৌঁছয় সোমবার বিকেল পৌনে পাঁচটা নাগাদ। ওই সময়ে কর্তব্যরত দুই আরপিএফ জওয়ান এস কে গুপ্ত ও অলোক দাসকে ওই ট্রেনেরই এক যাত্রী জানান, মহিলা কামরার সিটে একটি শিশু পড়ে রয়েছে। এর পরেই ওই দুই জওয়ান বর্ধমান-হাওড়া লোকাল ট্রেনের মহিলা কামরায় তল্লাশি চালিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে আরপিএফ-এর হেল্প ডেস্কে থাকা মহিলা কর্মীর হাতে তুলে দেন। খবর দেওয়া হয় আরপিএফ-এর কর্তাদের। প্রথমে শিশুটিকে রেলের চাইল্ড লাইনে পাঠানো হয়। তার পরে হাওড়া জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয় শারীরিক পরীক্ষা করতে। চিকিৎসকেরা শিশুটিকে সুস্থ ঘোষণা করার পরে পাঠানো হয় সালকিয়ার একটি হোমে।

হাওড়ার আরপিএফ-এর সিনিয়র ডেপুটি কমিশনার রজনীশ ত্রিপাঠী জানান, ওই শিশুকন্যাটিকে ইচ্ছাকৃত ভাবে কেউ ফেলে গিয়েছেন, নাকি অপহরণ করে কেউ ফেলে পালিয়েছে তা স্পষ্ট নয়। সে বিষয়ে তদন্ত করতে বিভিন্ন স্টেশনের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।