বাগুইআটি থেকে অপহৃত এক যুবককে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে উদ্ধার করল বিধাননগর পুলিশ। ঘটনায় দুই দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃতদের নাম সরিফুল মণ্ডল এবং অরুণ মণ্ডল। মঙ্গলবার রাতে নদিয়া থেকে দুষ্কৃতীদের গ্রেফতার করা হয় এবং অপহৃত যুবককে উদ্ধার করা হয়। একটি গাড়িও বাজেয়াপ্ত হয়েছে।

পুলিশ জানায়, ২৬ মার্চ আটঘরার বাসিন্দা শেখ রফিক আলি বাগুইআটি থানায় তাঁর ছেলের অপহরণের অভিযোগ দায়ের করেন। তিনি অভিযোগে জানান, ২৫ মার্চ সকাল এগারোটা নাগাদ তাঁর বছর তেত্রিশের ছেলে কৌসর আলি (৩৩) মোবাইলে একটি ফোন পেয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। সে দিন রাত ৯টা ২২ মিনিটে রফিকের মোবাইলে একটি অচেনা নম্বর থেকে ফোন আসে। বলা হয়, ছেলেকে ফেরত পেতে হলে ১৫ লক্ষ টাকা নিয়ে নৈহাটি-হাবড়া রোডের আওয়ালসিদ্ধি মোড়ে যেতে হবে। এর পরেই পুলিশের দ্বারস্থ হন রফিক।

সূত্রের খবর, প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, ২৫ মার্চ রাত থেকেই ফোনে মুক্তিপণ চায় দুষ্কৃতীরা। কিন্তু এত টাকা চাওয়ায় বিপদে পড়ে কৌসরের পরিবার। পরে মুক্তিপণের টাকা পাওয়া নিয়ে নিশ্চিত হলে দুষ্কৃতীরা নির্দিষ্ট জায়গা টাকা নেওয়ার কথা জানায়। 

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

ইতিমধ্যে পুলিশ মোবাইলের অবস্থান পরীক্ষা করে দুষ্কৃতীদের গতিবিধি সম্পর্কে খোঁজ করে। ২৬ মার্চ রাতে নদিয়ার হরিণঘাটা অঞ্চলে একটি গ্রামে হানা দিয়ে দুষ্কৃতীদের গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জেনেছে, কৌসর পুরনো গাড়ি কেনাবেচার কাজ করতেন। সেই সূত্র ধরে ধৃতদের সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়েছিল। ধৃতেরা দু’টি গাড়ি কেনার জন্য তাঁকে অগ্রিম দিয়েছিল। পরে তাঁরা টাকা ফেরত চায়। পুলিশ জানিয়েছে, সেই টাকা ফেরত না পেয়ে কৌসরকে অপহরণ করা হয়।