• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মেয়রের জল্পনা উস্কে প্রার্থী রূপা

Rupa Gangopadhyay

শূন্যস্থানে চমক। মঙ্গলবার প্রার্থী তালিকায় ফাঁকা থাকা দু’টি ওয়ার্ডের একটিতে বিজেপি-র প্রার্থী হলেন অভিনেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। বুধবার দিল্লিতে দলের সদর দফতরে গিয়ে রূপার নাম ঘোষণা করেন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিংহ।

কলকাতা পুরভোটে মঙ্গলবার বিজেপি যে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছিল, তাতে দু’টি ওয়ার্ড (৯৬, ৬২) প্রার্থীর নাম চূড়ান্ত না হওয়ায় ফাঁকা ছিল। বুধবার সেই শূন্যস্থানের একটিতে, ৯৬ নম্বর ওয়ার্ডে প্রার্থী করা হল রূপাকে। কিছু দিন আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সভাপতি রাহুল সিংহ এ দিন দিল্লি যান। দলের সদর দফতর থেকে রূপার নাম ঘোষণা করে বলেন, “আমরা অনেক দিন ধরেই এক জন ভাল মুখ খুঁজছিলাম। রূপার ভাবমূর্তি স্বচ্ছ।” বিজেপি নেতারা জানান, পুরভোটে মেয়র পদের জন্য কারও নাম ঘোষণা করা হয়নি। তবে তাঁর মুখ সামনে রেখেই ভোটে লড়বে দল। আর সে কারণেই রূপার নামটি কলকাতায় নয়, দিল্লিতে দলের সদর দফতরে দাঁড়িয়ে ঘোষণা করলেন রাহুলবাবু।

কলকাতা পুরসভার মেয়র পারিষদ দেবব্রত মজুমদারের বিরুদ্ধে লড়বেন রূপা। দেবব্রতবাবু নিজেও এক সময়ে ওই ওয়ার্ডের বিজেপি কাউন্সিলর ছিলেন। ২০১০ সালে ভোটের আগে তিনি তৃণমূলে যোগ দেন। তাঁর পুরনো ওয়ার্ড মহিলা সংরক্ষিত হওয়ায় ২০১০ সালে ৯৭ নম্বর ওয়ার্ড থেকে তাঁকে প্রার্থী করে তৃণমূল। সেটিও এ বার মহিলা সংরক্ষিত হওয়ায় ফের ৯৬ নম্বরে প্রার্থী হয়েছেন দেবব্রতবাবু।

বিজেপি-র প্রাক্তন কাউন্সিলরকে ‘শিক্ষা’ দিতেই কি এ বার প্রার্থী করা হল রূপাকে? তেমনটা নয় বলেই জানালেন বিজেপি-র রাজ্য সম্পাদক রীতেশ তিওয়ারি। তাঁর মন্তব্য, “দল মনে করে ওই ওয়ার্ডে তিনিই যোগ্য। তাই তাঁকে বাছা হয়েছে।” তবে তাঁর বিরুদ্ধে অভিনেত্রী রূপা প্রার্থী হওয়ার ঘটনাকে গুরুত্ব দিতে নারাজ দেবব্রত। তাঁর বক্তব্য, “যে কোনও এক জন প্রার্থী তো হবেনই। আর তাঁর বিরুদ্ধেই লড়াই করতে হবে।” তবে তৃণমূল নেতৃত্বের বক্তব্য, বিজেপি রূপাকে যতই প্রার্থী করুন, তৃণমূলকে হারানো সহজ নয়। সেখানে দেবব্রত মজুমদার বেশ জনপ্রিয় এবং কাজের মানুষ। তাঁর সততাও প্রশ্নহীন। রূপার গ্ল্যামার সেখানে টিকবে না।

অনেকের মতে, পুরভোটে নিজেদের প্রাসঙ্গিকতা ধরে রাখতেই রূপা গঙ্গোপাধ্যায়কে প্রার্থী করল বিজেপি। দিল্লিতে এ দিন দলের সভাপতি অমিত শাহ, সংগঠন সচিব রামলাল, পশ্চিমবঙ্গের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের সঙ্গে বৈঠক করেন রাহুলবাবুরা।

এ দিকে রূপাকে বিজেপি প্রার্থী করায় তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের প্রতিক্রিয়া, “নায়িকা হিসেবে যেমন ওঁর কিছু ছবি ফ্লপও হয়েছে, তেমনই জীবনের প্রথম নির্বাচনটা না ফ্লপ হয়ে যায়!”


সবিস্তার জানতে ক্লিক করুন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন