মাদক বিরোধী সম্মেলন থেকে বাড়ি ফেরার পথে পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদায় দুর্ঘটনার কবলে প়ড়লেন কলকাতার কয়েক জন বাসিন্দা। সোমবার সকালে বেলদা থানার রানিসরাইয়ের কাছে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কে ওই দুর্ঘটনায় অন্তত পাঁচ জন আহত হয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, দমদম ক্যান্টনমেন্ট, দুর্গানগর ও বেহালার কয়েক জন বাসিন্দা পুরী থেকে গাড়িতে মাদক বিরোধী সভা সেরে সোমবার বাড়ি ফিরছিলেন। সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ জাতীয় সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা বালি বোঝাই ডাম্পারের পিছনে আচমকা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি ধাক্কা মারে। দুর্ঘটনার জেরে গাড়ির সামনের অংশ ভীষণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। চোট পান ভিতরে থাকা সওয়ারিরা। খবর পেয়ে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ এবং বেলদা থানার পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে বেলদা গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করে।

পুলিশ সূত্রের খবর, অনিমেষ চক্রবর্তী, তাপস বর্মণ, মিঠুন দত্ত, অভিজিৎ বৈদ্য, অমিত দে এবং নির্মলেন্দু ভট্টাচার্য-সহ মোট ছ’জন ওই গাড়িতে ছিলেন। আহতেরা জানিয়েছেন, তাঁরা রাজ্যের একটি অ্যান্টি ড্রাগ সোসাইটি-র সদস্য। দমদম ক্যান্টনমেন্টের সুভাষনগরের বাসিন্দা, গাড়িচালক নির্মলেন্দু বলেন, ‘‘হঠাৎ করে লাগাতার কাশি শুরু হওয়ায় নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারিনি। দাঁড়িয়ে থাকা একটি গাড়ির পিছনে ধাক্কা মারি।’’ চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, কারও আঘাতই গুরুতর নয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পরে সকলেই কলকাতায় ফিরেছেন।

দুর্গানগরের বাসিন্দা অনিমেষ জানিয়েছেন, তিনি চালকের পাশে বসেছিলেন। বালি বোঝাই ডাম্পারের পিছনে ধাক্কা মারার সঙ্গে সঙ্গে স্টিয়ারিংয়ে আঘাত লাগে নির্মলেন্দুর। অনিমেষেরও বুকে আঘাত লাগে এবং সেই সঙ্গে শরীরের কয়েক জায়গায় কেটে যায়। তিনি জানিয়েছেন, মিঠুন এবং অমিত ছাড়া গাড়িতে থাকা সকলেরই অল্পবিস্তর চোট লেগেছে।