বেপরোয়া গাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হল এক মহিলার। শুক্রবার ভোর ৪টে নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে সল্টলেকের নাওভাঙায়। মৃতার নাম বাবলি চক্রবর্তী (৫০)। পুলিশ জানায়, এ দিন সকালে নাওভাঙা নেতাজি সঙ্ঘ ক্লাবের কাছে ওই প্রৌঢ়াকে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। কপালে আঘাত ছিল তাঁর। দ্রুত তাঁকে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। 

পুলিশ জানায়, পরে এই ঘটনায় মৃতার পরিবারের তরফে অভিযোগ জানানো হয়। পরিবারের অভিযোগ, ভোরে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন বাবলি। নাওভাঙা এলাকায় কোনও গাড়ি বেপরোয়া ভাবে যাওযার সময়ে তাঁকে ধাক্কা মারে। সেই ধাক্কায় তিনি ছিটকে পড়েন। পুলিশ জানিয়েছে, গাড়িটির খোঁজ শুরু হয়েছে। এই ঘটনায় বেপরোয়া ভাবে গাড়ি চালানো এবং অনিচ্ছাকৃত ভাবে মৃত্যু ঘটানোর মামলাও রুজু করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাতে পৌনে ১২টা নাগাদ নিউ টাউনেও একটি দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ সূত্রের খবর, একটি মোটরবাইকে করে তীব্র বেগে তিন ব্যক্তি যাচ্ছিলেন। নতুনপুকুর এলাকায় গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণ করতে না পেরে রাস্তার ডিভাইডারে গিয়ে ধাক্কা মারে মোটরবাইকটি। তখন ছিটকে পড়েন চালক ও আরোহীরা। তিন জনকে উদ্ধার করে দ্রুত বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়। হাসপাতাল সূত্রের খবর, ওই তিন জনের মধ্যে শ্যামল বিশ্বাস নামে এক ব্যক্তির আঘাত গুরুতর। তাঁকে এনআরএসে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। এই ঘটনায় বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানোর মামলা রুজু করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রের খবর।

সম্প্রতি ভিআইপি রোডে তেঘরিয়া এবং জোড়ামন্দিরে পৃথক দু’টি দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল এক মহিলা-সহ দু’জনের। তার পরে নিউ টাউনে একই ধরনের পথ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছিলেন এক গাড়িচালক।