• সুনন্দ ঘোষ
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ফোন কাজ না করলে আছে ‘প্লাস কোড’, পরামর্শ বিশেষজ্ঞের

Network
প্রতীকী ছবি।

আমপানের দাপটে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে মোবাইল টাওয়ার। সে ক্ষেত্রে হাতে মোবাইল থাকলেও ইন্টারনেট পরিষেবা তো দূর, কাউকে চাইলে ফোনও করা যাবে না। এই অবস্থায় কলকাতা-সহ রাজ্যের মানুষকে ‘প্লাস কোড’ ব্যবহার করার পরামর্শ দিলেন এক বেতার যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ।

কলকাতা পুলিশ, বিধাননগর কমিশনারেট, এমনকি ন্যাশনাল ডিজ়াস্টার রেসপন্স ফোর্স (এনডিআরএফ)-কে ইমেল মারফত অনুরোধ করে বলা হয়েছে, বেশি সংখ্যক নাগরিক যাতে এই প্লাস কোড ব্যবহার করেন, তার চেষ্টা করতে।

কলকাতার বাসিন্দা, হ্যাম রেডিয়ো বিশারদ ওই বেতারবিদ আর্য ঘোষের দাবি, যাঁরা এই প্লাস কোড নিজেদের মোবাইলে ডাউনলোড করে রাখবেন এবং তা পুলিশ-প্রশাসনকে জানিয়ে রাখবেন, ঝড়ের পরে তাঁদের উদ্ধার করতে সুবিধা হবে। পুলিশকর্তা এবং এনডিআরএফ-এর ডিরেক্টরকে পাঠানো ইমেলে আর্যবাবু নাগরিকদের প্লাস কোডের একটি তথ্যভাণ্ডার তৈরি রাখারও পরামর্শ দিয়েছেন। তাঁর কথায়, ‘‘পরবর্তীকালে এই ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময়েও পুলিশের কাছ থেকে সাহায্য পেতে এই তথ্যভাণ্ডার সাহায্য করতে পারে।’’ 

আর্যবাবু জানিয়েছেন, গুগল ম্যাপ এখন প্রায় প্রতিটি স্মার্ট ফোনেরই অঙ্গ। সেই ম্যাপ থেকে প্লাস কোড ডাউনলোড করা যায়। এটি আদতে একটি সংখ্যা। তাঁর কথায়, “আপনার মোবাইল কাজ না করলেও আপনার প্লাস কোড জানা থাকলে তা গ্লোবাল পজ়িশনিং ব্যবস্থার মাধ্যমে আপনার ভৌগোলিক উপস্থিতি বা অক্ষাংশ-দ্রাঘিমাংশ জানিয়ে দেবে।”

আমপানের জেরে বিপুল ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছে প্রশাসন। সে ক্ষেত্রে অনেক মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন। আটকেও পড়তে পারেন অনেকে। উদ্ধারকারী দল উপগ্রহচিত্র দেখে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা খুঁজে পাবে ঠিকই, কিন্তু সেখানে কোনও মানুষের অবস্থান নির্দিষ্ট ভাবে জানতে সাহায্য করবে এই প্লাস কোড, এমনই দাবি করছেন আর্যবাবু।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন