• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আড়াই কোটির সোনা বাজেয়াপ্ত

gold
প্রতীকী ছবি।

কলকাতায় পাচারের পথে শিলিগুড়িতে ধরা পড়ল চোরাই সোনা। প্রায় ২ কোটি ৬৫ লক্ষ টাকা মূল্যের এই সোনা-সহ ডিরেক্টরেট অব রেভিনিউ ইন্টেলিজেন্স (ডিআরআই)-এর হাতে ধরা পড়েছে কলকাতার খিদিরপুরের দুই যুবক। জেরার মুখে রাকেশ গুপ্ত এবং হরিশ প্রসাদ নামে ওই দু’জন জানিয়েছে, কলকাতার বাজারের জন্যই এই সোনা পাচার করা হচ্ছিল।

ডিআরআই সূত্রের খবর, ওই সোনা পাচার হয়েছে মায়ানমার থেকে। সেখান থেকে সড়কপথে মণিপুর সীমান্ত দিয়ে সেটি ভারতে ঢুকেছে দিন কয়েক আগে। ধৃত দুই যুবকের কাজ ছিল কলকাতা থেকে গিয়ে সেই সোনা গাড়িতে করে নিয়ে আসা। কিন্তু, এই সোনা পাচারের খবর আগাম পেয়ে যান অফিসারেরা। তাঁরা গাড়ির নম্বর এবং গতিপথও জানতে পারেন। সেই মতো শিলিগুড়িতে তাঁরা অপেক্ষা করছিলেন। মঙ্গলবার দুপুরে সেখানকার বর্ধমান রোডে আটক করা হয় গাড়িটি।

প্রথমে দুই যুবক গাড়িতে সোনা থাকার কথা অস্বীকার করে বলে ডিআরআই কর্তারা জানিয়েছেন। শেষে গাড়ির ছাদের ভিতর থেকে উদ্ধার হয়েছে ৩০টি সোনার টুকরো। সব মিলিয়ে সেগুলির ওজন ৪ কিলোগ্রাম ৯৮০ গ্রাম। যার বাজারদর ২ কোটি ৬৫ লক্ষ টাকারও কিছু বেশি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন