জেল থেকেই ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি টেস্টে (নেট) বসতে চলেছেন দীপক কুমার পারগনিয়াহ। আগামিকাল, মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটে থেকে সাড়ে ৫টা পর্যন্ত বিধাননগরের গীতবিতানে ওই পরীক্ষা দেওয়ার কথা রয়েছে তাঁর। বর্তমানে দমদম সেন্ট্রাল জেলে রয়েছেন দীপক। 

কয়েক মাস আগে নেটে বসার কথা ছিল মাওবাদী বন্দি অর্ণব দামের। তিনি এখন জামিনে মুক্ত আছেন। ঘটনাচক্রে, অর্ণবের পরীক্ষাকেন্দ্রও ছিল গীতবিতান। কিন্তু অর্ণব-ঘনিষ্ঠদের অভিযোগ, প্রেসিডেন্সি জেল কর্তৃপক্ষের গাফিলতিতে সময়মতো সে বার পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছতে পারেননি অর্ণব। ফলে নেটে বসতে পারেননি তিনি। এ বার দীপকেরও পরীক্ষাকেন্দ্র গীতবিতান। অর্ণবের প্রসঙ্গ টেনে তাই সংশয় প্রকাশ করে এপিডিআরের রঞ্জিত শূর বলেন, ‘‘অর্ণবের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না। জেল কর্তৃপক্ষ দীপককে সময়মতো পরীক্ষাকেন্দ্রে নিয়ে যাবেন বলে আশা করছি।’’ 

মাওবাদীদের অস্ত্র সরবরাহ করার অভিযোগে ২০১২ সালে কলেজ স্ট্রিট থেকে গ্রেফতার হয়েছিলেন ছত্তীসগঢ়ের বাসিন্দা দীপক। তার পর থেকে জেলই ঠিকানা তাঁর। সমাজতত্ত্ব বিষয়ে এ বার নেট-উত্তীর্ণ হতে পরীক্ষায় বসবেন একদা ভিলাই স্টিল প্ল্যান্টে চাকরি করা দীপক। ইন্দিরা গাঁধী জাতীয় মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (ইগনু) থেকে সমাজতত্ত্বে স্নাতকোত্তরের (এমএ) পরীক্ষায় প্রথম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হন দীপক। ৪৯ বছরের এই বন্দি বর্তমানে হিন্দি ভাষা ও সাহিত্যে স্নাতকোত্তর স্তরে পড়ছেন।