• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পুনর্নিয়োগ নিয়ে নয়া ভাবনা পুরসভার

KMC
প্রতীকী ছবি।

অবসরের পরে পুনর্নিয়োগ হওয়ার রেওয়াজ পুরসভায় অনেক দিন ধরেই। এ বার সেই অভ্যাসে লাগাম টানতে চায় পুর প্রশাসন। তবে তা ধাপে ধাপে। শুক্রবার পুরভবনে মেয়র পারিষদের বৈঠকে এ নিয়ে আলোচনা হয়। মেয়র পরিষদের বৈঠকে আলোচ্য বিষয়ে তা না থাকলেও ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ বৈঠকের শেষের দিকে ওই প্রসঙ্গ তোলেন। মেয়র ফিরহাদ হাকিম-সহ একাধিক মেয়র পারিষদ তাতে সায় দেন। পরে পুরসভা সূত্রে জানানো হয়, পুনর্নিয়োগের বিষয়ে পুর প্রশাসন এ বার থেকে সতর্ক হবে। সাব ইন্সপেক্টর, বেইলি পদে অবসর পাওয়া কর্মী-অফিসারদের কোনও ভাবেই পুনর্নিয়োগ করা হবে না। এগজিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার পদের নীচে কোনও ইঞ্জিনিয়ারকেও পুনর্নিয়োগ করা হবে না। পরবর্তী ধাপে আরও কিছু পদে পুনর্নিয়োগ বন্ধ করা হবে।

তা হলে পদ খালি হবে কী করে?

এ বিষয়ে বৈঠকে পুরবোর্ডের কর্তারা জানিয়েছেন, খালি পদে নতুন করে লোক নিয়োগ করা হবে। এবং তা হবে মিউনিসিপ্যাল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে। প্রসঙ্গত, কলকাতা পুরসভায় বিভিন্ন ক্যাডারের প্রায় ৩০ হাজারের মতো স্থায়ী কর্মী রয়েছে। প্রতি বছর বেশ কিছু কর্মী অবসর নেন। তাঁদের মধ্যে থেকে কাউকে কাউকে পুনর্নিয়োগ করা হয়ে থাকে। মূলত, যে দফতরের কর্মী সেই দফতর থেকে প্রস্তাব পাঠানো হয় পুর কমিশনারের কাছে। সে ভাবেই পুনর্নিয়োগ হয়। বিগত কয়েক বছর ধরে ওই ভাবেই কাজ চলছে। 

এই মুহূর্তে শ’খানেকেরও বেশি কর্মী পুনর্নিয়োগ হয়ে কাজ করছেন। ডেপুটি মেয়র অতীনবাবু বলেন, ‘‘এই অভ্যাস বোধ হয় ঠিক নয়। তবে দীর্ঘদিন নিয়োগ না হওয়ায় এই প্রথা চালানো হয়েছে। এ বার কিছু ভাবা দরকার বলে মেয়র পরিষদের বৈঠকে বিষয়টি তোলা হয়েছিল।’’ মেয়র ফিরহাদ হাকিমও জানিয়েছেন, একে বারে যোগ্য লোক না মিললে 

হয়তো দু’একজনকে রাখতে হয়। তবে নতুন করে নিয়োগ করতে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন