• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নিউ টাউনে পরিষেবার দাবিতে স্মারকলিপি

HIDCO
ফাইল চিত্র।

হিডকোর কাছে নিউ টাউনে সরকারি হাসপাতাল, স্কুল, ব্লকে ব্লকে কমিউনিটি সেন্টার তৈরি-সহ এক গুচ্ছ দাবি পেশ করলেন বাসিন্দারা। বুধবার দুপুরে তাঁরা হিডকো অফিসের সামনে জড়ো হন। সেখানে সভা করার পরে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল হিডকো কর্তৃপক্ষের কাছে স্মারকলিপি দেয়। বাসিন্দাদের দাবি, হিডকো কর্তৃপক্ষ তাঁদের আবেদন নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানিয়েছেন।

বাসিন্দারা জানান, নিউ টাউনে ক্রমশ জনবসতি বাড়ছে। সেখানে বিভিন্ন আর্থিক ক্ষমতাসম্পন্ন মানুষেরা থাকেন। কিন্তু সেখানে স্বাস্থ্য, শিক্ষা-সহ বেশ কিছু বিষয়ে পরিষেবায় ঘাটতি রয়েছে বলে অভিযোগ বাসিন্দাদের। এ দিন সে সব নিয়েই তাঁরা কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি পেশ করেন।

সম্প্রতি নিউ টাউনের অ্যাকশন এরিয়া-১ এলাকার ২০টি ব্লক এবং ২৩টি আবাসনের প্রায় ২০০ জন প্রতিনিধি মিলে নিউ টাউন রেসিডেন্টস ওয়েলফেয়ার ফোরাম গঠন করেছেন। নাগরিকদের সমস্যা নিয়ে তাঁরা বৈঠক করে এই স্মারকলিপি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

ওই সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক সমীর গুপ্ত জানান, মোট আট দফা দাবি পেশ করা হয়েছে। নিউ টাউনে বেসরকারি হাসপাতাল রয়েছে। কিন্তু সব বাসিন্দার সেই হাসপাতালে চিকিৎসা করানোর সাধ্য নেই। তাই প্রয়োজন সরকারি স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের। এর পাশাপাশি বাংলা ও ইংরেজি মাধ্যমের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক সরকারি স্কুলের প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন বাসিন্দারা।

বাসিন্দাদের আরও দাবি, সল্টলেকের থেকে নিউ টাউনে সম্পত্তিকরের পরিমাণ বেশি। এর ফলে পেনশনভোগী এবং আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের সমস্যা দেখা দিচ্ছে। কর কাঠামোর বিষয়টিও বিবেচনা করে দেখার দাবি জানিয়েছেন বাসিন্দারা। বহু ব্লকে পুজো-পার্বণ থেকে শুরু করে কোনও অনুষ্ঠান করার মতো কমিউনিটি হল নেই। আবাসিক সমিতিগুলির কাজকর্ম পরিচালনার জন্য নেই কোনও অফিস। তাই কমিউনিটি সেন্টারেরও দাবি করা হয়েছে বাসিন্দাদের তরফে। এর পাশাপাশি খেলার মাঠ ও সুইমিং পুল তৈরির দাবিও রাখা হয়েছে। নিউ টাউনের রাস্তায় গাড়ির চাপ বাড়ছে। তাই দুর্ঘটনা এড়াতে বিভিন্ন মোড়ে চলমান সিঁড়ি যুক্ত সাবওয়ে তৈরি করার দাবিও পেশ করেন বাসিন্দারা।

বাসিন্দাদের দাবি, হিডকো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, দাবিগুলির মধ্যে বেশ কয়েকটি নিয়ে তাঁরা ইতিমধ্যেই ভাবনা-চিন্তা করছেন। সেগুলি প্রক্রিয়াগত স্তরে রয়েছে। হিডকো সূত্রের খবর, সরকারি স্কুল, হাসপাতাল এবং কমিউনিটি হল তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে। বাসিন্দাদের বাকি দাবিগুলি নিয়ে পর্যালোচনা করা হতে পারে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন