ছেঁড়া হল প্রার্থীর ব্যানার
পুলিশ সূত্রের খবর, হারান রায় নামে এক ব্যক্তির দাবি, বৃহস্পতিবার রাতে মুরারিপুকুরে সুদীপের নামে লাগানো পোস্টার ছেঁড়া হচ্ছিল। যাঁরা পোস্টার ছিঁড়ছিলেন বলে অভিযোগ, তাঁরা এলাকারই তৃণমূলকর্মী বলে দাবি করেছেন হারান।
election

প্রার্থী পছন্দের। কিন্তু তাঁর প্রচার-ব্যানারের নীচে সৌজন্য-সহ যে নামটি রয়েছে, সেটি পছন্দের নয়। তাই উত্তর কলকাতার তৃণমূল প্রার্থী সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে লাগানো ব্যানার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ উঠল তৃণমূলেরই একাংশের বিরুদ্ধে। প্রতিবাদ করতে গিয়ে এক তৃণমূল সমর্থক মার খেয়েছেন বলেও অভিযোগ। মানিকতলা থানার পাশাপাশি ডিসি (ইএসডি)-র দফতরে এ নিয়ে লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্রের খবর, হারান রায় নামে এক ব্যক্তির দাবি, বৃহস্পতিবার রাতে মুরারিপুকুরে সুদীপের নামে লাগানো পোস্টার ছেঁড়া হচ্ছিল। যাঁরা পোস্টার ছিঁড়ছিলেন বলে অভিযোগ, তাঁরা এলাকারই তৃণমূলকর্মী বলে দাবি করেছেন হারান।

স্থানীয় সূত্রের দাবি, ওই পোস্টারের নীচে সৌজন্য হিসেবে সঞ্জীব দাস এবং প্রতাপ দেবনাথ নামে দুই তৃণমূল নেতার নাম ছিল। অভিযোগ, প্রশান্ত হাজরা নামে আর এক তৃণমূল নেতার ছেলেরা সেই পোস্টার ছিঁড়ে প্রশান্তের নাম লেখা পোস্টার টাঙিয়েছেন। সঞ্জীব বলেন, ‘‘ওঁরা নিজেদের দলের উপরে ভাবছেন।’’ প্রশান্ত অবশ্য অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘‘কারা পোস্টার ছিঁড়েছেন জানি না।’’

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

এ নিয়ে এলাকার বিধায়ক সাধন পাণ্ডে বলেন, ‘‘কী ঝামেলা হয়েছে, খোঁজ নিচ্ছি।’’ তবে অনেকের মত, এই ঘটনায় উত্তর কলকাতায় তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব আরও এক বার প্রকাশ্যে এল। স্থানীয় তৃণমূলের একটি সূত্রের দাবি, প্রশান্তের নামে লাগানো পোস্টারও খুলে ফেলতে বলেছেন সাধনবাবু।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত