জামাইয়ের বিরুদ্ধে শ্বশুরকে খুনের অভিযোগ উঠল। শনিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে গার্ডেনরিচ থানা এলাকার শ্যামলাল লেনে। ওই ঘটনায় জামাই মহম্মদ আরশাদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, গার্ডেনরিচের শ্যামলাল লেনে শ্বশুর মহম্মদ সুলতানের (৩৫) বাড়িতেই ঘরজামাই থাকতেন মহম্মদ আরশাদ। তাঁর সঙ্গে সুলতানের মেয়ের কয়েক বছর আগে বিয়ে হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরের সঙ্গে জামাইয়ের গণ্ডগোল লেগে থাকত। তদন্তকারীরা জানান, শ্বশুরবাড়িতে থাকলেও জামাই তেমন কাজকর্ম করতেন না। এই নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিবাদ চলতই। শনিবার সকালে জামাই ও শ্বশুরের মধ্যে তীব্র কথা কাটাকাটি হয়। তা থেকে হাতাহাতি শুরু হয়। অভিযোগ, এর মধ্যেই আরশাদ হঠাৎ ছুটে গিয়ে বাড়ির ভিতর থেকে ধারালো ছুরি নিয়ে এসে শ্বশুরের বুকের বাঁ দিকে আঘাত করেন। ছুরির আঘাতে রক্তাক্ত হন সুলতান। বাড়ির লোকেরা তাঁকে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা সুলতানকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

হাসপাতালে মৃতের বুকে ছুরির আঘাতের চিহ্ন পেয়ে চিকিৎসকেরা এসএসকেএমের আউটপোস্টের পুলিশকে খবর দেন। পরে আউটপোস্টের পুলিশ গার্ডেনরিচ থানায় খবর দেয়। পুলিশের এক কর্তা বলেন, ‘‘পরিবারের লোকেরা কোনও অভিযোগ করেননি। তবে পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা রুজু করেছে।’’