কলকাতা পুরসভার তথ্য বলছে, পুর এলাকায় দৈনিক ২০ লক্ষ টাকার জল অপচয় হচ্ছে! এই অপচয়ের অনেকগুলি কারণের অন্যতম, রাস্তার কল থেকে অনবরত পানীয় জল পড়ে নষ্ট হয়ে যাওয়া। এ শহরে এমন দৃশ্য আকছার দেখা যায়। সম্প্রতি দেশ জুড়ে পানীয় জলের সঙ্কট নিয়ে তোলপাড় শুরু হওয়ায় বিষয়গুলি নজরে আসছে।

বহু জায়গায় উধাও হয়ে গিয়েছে পানীয় জলের কল। স্থানীয়দের অভিযোগ, জলের কল উধাও হওয়ার পিছনে কোথাও কোথাও রয়েছে মাদকাসক্তদের দৌরাত্ম্য। উত্তর কলকাতার নীলমণি মিত্র স্ট্রিট, হরি ঘোষ স্ট্রিট, বিধান সরণির বেশ কিছু এলাকায় ঘুরলেই দেখা যায়, রাস্তার ধারের অনেক প্লাস্টিকের কলের মাথা ভাঙা। ফলে পানীয় জল সেখান দিয়ে অনবরত পড়ে যায়। নীলমণি মিত্র স্ট্রিটের বাসিন্দাদের অভিযোগ, দিন কয়েক আগে তাঁরা দেখেন, একটি কলের মাথা উধাও। তাঁদের প্রশ্ন, ‘‘আগের দিনও যে কল ছিল, পরদিন সকালে সেটির মাথা নেই। নিশ্চয়ই রাতে বা ভোরে কেউ ভেঙে নিয়ে গিয়েছেন?’’ যদিও এর কোনও প্রমাণ তাঁদের কাছে নেই বলে দাবি বাসিন্দাদের। সাময়িক সমাধানসূত্র খুঁজতে কলের মাথায় পেরেক লাগিয়ে খোলা-বন্ধ করছেন বলে জানাচ্ছেন তাঁরা। তবে সবাই তো আর তত সচেতন নন, ফলে কেউ কল খুলে গেলে জল পড়েই যাচ্ছে।

বিধান সরণি এলাকার এক বাসিন্দার অভিযোগ, ‘‘এলাকায় মাদকাসক্তদের উৎপাত যথেষ্ট। এই কলগুলি বেশির ভাগ তাঁরাই চুরি করে পালাচ্ছেন। এই নিয়ে স্থানীয় থানায় অভিযোগও জানানো হয়েছে।’’