দুর্গাপুজোর আর বেশি দিন বাকি নেই। থিমের লড়াইয়ে পুজো উদ্যোক্তারা কোমর বেঁধে নেমে পড়েছেন ময়দানে। সেই লড়াইয়ে সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের এ বারের চমক, সোনার দুর্গা। ‘খাঁটি সোনা’ দিয়ে ১২ ফুটের ওই দুর্গা তৈরি করতে লাগবে আনুমানিক ১৭ কোটি টাকা!

কলকাতার পুজোয় এর আগে এত টাকা খরচ করে দুর্গা প্রতিমা তৈরি হয়নি বলেই দাবি ওই পুজো কমিটির। সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের পুজো এ বার ৮৪ বছরের পড়বে। সর্ব ভারতীয় একটি স্বর্ণবিপণীর উদ্যোগে ওই প্রতিমা তৈরি হচ্ছে। দুর্গার রূপ দিচ্ছেন শিল্পী মিন্টু পাল। শুধু প্রতিমাই নয়, প্যান্ডেলেও থাকবে চমক। শিল্পী দীপক ঘোষের তত্ত্বাবধানে মায়াপুরের প্রস্তাবিত একটি মন্দিরের আদলে তৈরি হবে সন্তোষ মিত্র স্কোয়ারের মণ্ডপ। মন্দিরের আদলে ওই মণ্ডপ প্রায় ১০ টন কাচ দিয়ে তৈরি হবে। পুজো কমিটির সাধারণ সম্পাদক সজল ঘোষ বলেন, “আমরা প্রতি বছরই নতুন কিছু করার চেষ্টা করি। এ বার আমাদের চমক সোনার দুর্গা। মণ্ডপ এবং প্রতিমা দেখে দর্শকেরা মুগ্ধ হবেন।”

দামি প্রতিমা, তার উপর বিশাল মণ্ডপ— তাই নিরাপত্তার বিষয়েও বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা। এই পুজোর সভাপতি কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন মেয়র পারিষদ প্রদীপ ঘোষ। দীর্ঘ দিন ধরে তিনি পুজোর সঙ্গে জড়িত। তবে গত কয়েক বছর ধরে পুজোর সব দায়িত্ব নিজের হাতে তুলে নিয়েছেন সজলবাবু। তাঁর কথায়: “আমাদের বহু সেচ্ছাসেবক রয়েছে। তাঁরা তো নিরাপত্তার জন্যে থাকছেই। যে হেতু সোনার দুর্গা, তাই বাড়তি সতর্কতাও নেওয়া হচ্ছে।”

আরও পড়ুন: জঙ্গিদের জন্য বাংলা ভাষায় আল কায়েদার ‘আচরণবিধি’!​

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় হারেই বাড়তে পারে রাজ্যের কর্মীদের বেতন, কিন্তু প্রাপ্য বকেয়া নিয়ে সংশয়​

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।