• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

হাইকোর্টে গিয়েও সোনিকা মৃত্যু মামলায় অব্যাহতি পেলেন না অভিনেতা বিক্রম

 photo: 13 sironam vikram and sonika

মডেল সোনিকা সিংহ চৌহানের মৃত্যু মামলায় আরও বিপাকে অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায়। ওই মামলা থেকে অব্যাহতি চেয়ে তিনি কলকাতা হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন। বুধবার মামলার শুনানির সময় বিক্রমের আবেদন খারিজ করে দেন বিচারপতি শিবকান্ত প্রসাদ।

তিনি বলেন, “এই মামলাটি নিম্ন আদালতে বিচারাধীন। এতে হাইকোর্ট হস্তক্ষেপ করবে না।”

আলিপুর আদালতে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি  সোনিকার সিংহ চৌহানের মৃত্যু মামলার চার্জগঠন হওয়ার কথা। দ্রুত যাতে চার্জগঠন হয়, সেটাও স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন বিচারপতি। এ দিন হাইকোর্টের নির্দেশের পর নিম্ন আদালতে চার্জগঠন করতে কার্যত বাধা থাকল না বলেই মনে করছেন সোনিয়ার পরিবারের আইনজীবীদের।

আরও পড়ুন: মোদীর বায়োপিকে অমিত শাহের চরিত্রে কে অভিনয় করছেন জানেন?​

হাইকোর্টের নির্দেশের পর এ দিন সনিকার বাবা বিজয় সিংহ বলেন, “মেয়েকে তো আর ফিরে পাব না। তবে আজকে আদালতের রায়ে বিচারব্যবস্থার  প্রতি আস্থা ফিরে পেলাম। সত্যের জয় হবেই। এই দুঃসময়ে যাঁরা পাশে থেকেছেন, তাঁদের সকলের কাছে কৃতজ্ঞ আমরা।”

২০১৭-র ২৯ এপ্রিল ভোর রাতে পার্টি সেরে ফিরছিলেন বিক্রম-সোনিকা। তদন্তে জানা যায়, দুর্ঘটনার আগে বিক্রমের গাড়ির গতিবেগ ছিল ১০০ কিলোমিটারেরও বেশি। গড়িয়াহাট মোড় থেকে রাসবিহারী মোড়ের দিকে যাচ্ছিল সাদা রঙের টয়োটা করোলা অলটিস গাড়িটি। অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায় নিজেই গাড়িটি চালাচ্ছিলেন। পাশে বসে ছিলেন বান্ধবী সোনিকা সিংহ চৌহান। আচমকা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি ডিভাইডারে ধাক্কা মারে। ওই ঘটনায় মৃত্যু হয় তাঁর।

আরও পড়ুন: আপাতত প্রশ্ন শেষ, আজই কলকাতায় ফিরছেন রাজীব কুমার, ডাকা হতে পারে ফের​

এই ঘটনায় মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানোর অভিযোগ উঠেছিল বিক্রমের বিরুদ্ধে। গ্রেফতারও হয়েছিলেন টলিউডের এই অভিনেতা। তার পর নিম্ন আদালতে মামলা চলছিল। চার্জশিট হয়ে গিয়েছে। কিন্তু মামলার চার্জ গঠন বিলম্বিত হচ্ছিল এবং তার জেরে মামলার বিচারপ্রক্রিয়া শুরু হচ্ছিল না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সোনিকা সিংহ চৌহানের এক বন্ধু বলেন, “দু’বছরের বেশি সময় হয়ে গিয়েছে। এই মামলার ট্রায়াল শুরু হতে দেরি হচ্ছে। এ দিন আদালতের এই নির্দেশের পর আর কোনও বাধা থাকছে না। আমারা খুশি।”

বিক্রমের আইনজীবী অনির্বাণ গুহঠাকুরতা বলেন, “অব্যাহতি চেয়ে যে মামলা হয়েছিল, তা খরিজ করে দিয়েছে আদালত। পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে, তা মক্কেলের সঙ্গে পরামর্শ করে ঠিক করা হবে।”

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন