ফের প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস উত্তাল হয়ে উঠল। তিন ছাত্রের সাসপেনশন প্রত্যাহারের দাবিতে বুধবার দুপুর থেকে উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়াকে ঘেরাও করে রেখেছেন পড়ুয়ারা। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত বদল না করা পর্যন্ত ঘেরাও কর্মসূচি চলবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন পড়ুয়ারা।

এর আগে হিন্দু হস্টেলের দাবিতে আন্দোলনের জেরে প্রেসিডেন্সির সমাবর্তন অন্যত্র সরাতে হয়। এ বিষয়ে গঠিত তদন্ত কমিটি ৩ জনকে ১ বছরের জন্য এবং বাকি ১৮ জনকে ৬ মাসের জন্য সাসপেন্ডের সুপারিশ করে। এর পর ওই ৩ ছাত্রকে ৬ মাসের জন্য সাসপেন্ড করেন কর্তৃপক্ষ। বাকি ১৮ জনকে সতর্ক করে চিঠি দেওয়া হয়। গত ২ জানুয়ারি ওই সাসপেনশনের নির্দেশ কার্যকরী করা হয়।

তার পর থেকেই নতুন করে আন্দোলন শুরু হয়েছে। ওই তিন ছাত্রের সাসপেনশন প্রত্যাহারের দাবিতে গত পাঁচ দিন ধরেই অনশনে বসেছেন ৬ পড়ুয়া। তা ছাড়া ক্যাম্পাসে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু হয়েছে।

আরও পড়ুন: পশুপ্রেমীদের অবস্থানে পুলিশের লাঠি! অভিনেত্রী দেবলীনা-সহ অনেকে আহত

উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া যদিও ঘেরাও এবং অনশন প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, তাঁকে ব্ল্যাকমেল করা হচ্ছে। তাঁর কথায়,  “অনশন করে কিছু লাভ নেই। আমাকে ব্ল্যাকমেল করা হচ্ছে। অনশন না তুললে আলোচনাই হবে না। আগে ওদের অনশন তুলতে হবে। তার পর কথা হবে।”

আরও পড়ুন: অনলাইনে মোবাইলের অর্ডার, বাক্স খুলতেই মিলল কাপড় কাচার সাবান!