ফের হিন্দু হস্টেল নিয়ে অবস্থানে পড়ুয়ারা। সম্পূর্ণ রূপে হস্টেল খোলার দাবিতে এই অবস্থান চলছে।

পড়ুয়াদের অভিযোগ, হিন্দু হস্টেলের যে অংশে এখন আবাসিকরা রয়েছেন, তার অবস্থাও ভাল নয়। থাকার সুব্যবস্থা করার পাশাপাশি পরিকাঠামোর উন্নতির দাবিতে সরব হয়েছেন প্রেসিডেন্সির পড়ুয়ারা। তাঁদের দাবি, হস্টেলের বাকি অংশের কাজ কবে শেষ হবে, তা অবিলম্বে লিখিত ভাবে জানাতে হবে। সদুত্তর না পাওয়ায় শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে ডিন অব স্টুডেন্টস-এর ঘরের বাইরে অবস্থান চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন এক আন্দোলনকারী।

ওই আন্দোলনকারীর বক্তব্য, ‘‘হিন্দু হস্টেলের দু’টি ওয়ার্ড খুলেছে প্রায় এক বছর হয়েছে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিলেন, বাকি অংশের কাজ শেষ করে দ্রুত আবাসিকদের থাকার বন্দোবস্ত করা হবে। যত দিন না পর্যন্ত সম্পূর্ণ ভাবে হস্টেল খুলছে, তত দিন পর্যন্ত প্রতি মাসে এক বার ত্রিপাক্ষিক মিটিং (হস্টেল-কর্তৃপক্ষ-পি.ডব্লিউ.ডি.) হবে। কিন্তু গত এক বছরে এক বারও সে মিটিং হয়নি। এর মধ্যে বার বার আমরা খবর নিতে এসেছি কিন্তু কর্তৃপক্ষ আমাদের কোনও সদুত্তর দেননি।’’

আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, হস্টেলে ম্যালেরিয়া, ডেঙ্গুর মতো রোগ লেগেই আছে। কিন্তু ছাত্রদের চিকিৎসার জন্য যে 'সিক রুম' ছিল, সেটা নতুন করে আর খোলেনি।