কানির্ভালের সাত দিন পরে সাফ হল রেড রোড সংলগ্ন এলাকা। রবিবারও সেখানে প্লাস্টিকের পাউচ দেখা গিয়েছিল। বিষয়টি জানার পরেই কলকাতা পুরসভার তরফে এলাকা পরিষ্কার করা হয়। যদিও পরিবেশকর্মীদের একাংশের প্রশ্ন, কার্নিভালের এলাকা সাফ হল কি না, তা তো পুরসভারই দেখার কথা ছিল। তা ছাড়া সরকারি অনুষ্ঠানেই যদি প্লাস্টিকের পাউচের এত ছড়াছড়ি থাকে, তা হলে প্লাস্টিক-বিরোধী অভিযান সফল হবে কী ভাবে?

পুরকর্তাদের একাংশের বক্তব্য, কানির্ভালের মঞ্চের নীচে ওই প্লাস্টিক জমা ছিল। মঞ্চ খোলার পরে নজরে এসেছে। এ দিন অবশ্য সাফাইয়ের পরেও কিছু প্লাস্টিক বিক্ষিপ্ত ভাবে পড়ে থাকতে দেখা গিয়েছে। এক পুরকর্তার কথায়, ‘‘বিনের ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু সেখানে না ফেলে অনেকেই রাস্তায় প্লাস্টিক ফেলেছেন!’’ পরিবেশকর্মীরা অবশ্য বলছেন, রাস্তায় প্লাস্টিক ফেলার ঘটনা তো নতুন নয়! সে ক্ষেত্রে পুরসভারই বাড়তি সতর্ক থাকা দরকার ছিল। এক পরিবেশকর্মীর কথায়, ‘‘সরকারের তরফে এক দিকে প্লাস্টিক-বিরোধী প্রচার চালানো হচ্ছে। আবার সরকারি অনুষ্ঠানস্থলেই প্লাস্টিকের ছড়াছড়ি। প্লাস্টিক-বিরোধী অভিযানের জন্য যা মোটেই আশাপ্রদ চিত্র নয়।’’

পুরসভার মেয়র পারিষদ (জঞ্জাল) দেবব্রত মজুমদার বলেন, ‘‘খবর পাওয়ার পরেই পরিষ্কার করা হয়েছে।’’