বৃদ্ধ দম্পতির ঘরের দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে চলল অবাধে চুরি। এর পরে বাড়ির কাছেই চুরির সামগ্রী ভাগ করে খালি গয়নার বাক্স ফেলে চম্পট দিল দুষ্কৃতীরা! দমদম থানা এলাকার দুর্গানগর স্টেশন রোডে চোরেদের দুঃসাহস দেখে অবাক স্থানীয় বাসিন্দারা।

শনিবার অফিসের কাজে স্বামী অভিষেক চক্রবর্তী রায়চক যাওয়ায় মেয়েকে নিয়ে বাপের বাড়ি গিয়েছিলেন স্ত্রী সঙ্গীতা চক্রবর্তী। ঘরে অভিজিতের বাবা শুভেন্দু চক্রবর্তী এবং মা দীপালি চক্রবর্তী ছিলেন। পুলিশ সূত্রের খবর, রবিবার 

সকালে ঘুম থেকে উঠে শুভেন্দুবাবু দেখেন, তাঁদের ঘরের দরজা বাইরে থেকে বন্ধ। জানলা দিয়ে এক প্রতিবেশীকে ডেকে তাঁর সাহায্যে খোলা হয় দরজা। নিজেদের ঘর থেকে বেরিয়ে তাঁরা দেখেন, পাশে ছেলের ঘরের দরজা ভাঙা। এর পরেই অভিষেকের ঘরের ভিতরে ঢুকে দেখেন, গোটা ঘর লন্ডভন্ড। তখন তাঁরা বুঝতে পারেন ঘটনাটি। 

এ দিন দুর্গানগরের বাড়িতে ফিরে অভিষেক জানান, আলমারির লকারে নগদ টাকা, গয়না যা ছিল, সবটাই নিয়ে গিয়েছে চোরেরা। বাড়ির কাছে রাস্তার উপরে ফাঁকা গয়নার বাক্সগুলি দেখতে পান অভিষেকের মা দীপালিদেবী। অভিষেক জানান, এর আগেও এক বার তাঁদের বাড়িতে দুষ্কৃতীরা ঢুকে বাইরে থেকে দরজা লাগিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু সে যাত্রায় অভিষেকেরা বাড়িতে থাকায় পরিকল্পনা সফল হয়নি। 

স্থানীয়দের একাংশের অভিযোগ, দমদম থানার অন্তর্গত ওই এলাকায় প্রায়ই চুরি হচ্ছে। স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর অঞ্জু মিশ্র বলেন, ‘‘এলাকায় সমাজবিরোধী কার্যকলাপ নিয়ে বারবার দমদম থানায় জানিয়েছি। মৌখিক প্রতিশ্রুতি ছাড়া কিছুই মেলে না। পুলিশের টহলদারি ঠিক মতো চললে এমন ঘটতে পারে না।’’ পুলিশ জানায়, শনিবার রাতের ঘটনায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। শুরু হয়েছে তদন্ত।