স্কুলে চিঠি লিখে নিজের বিয়ে রুখল নবম শ্রেণির এক ছাত্রী৷ বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে সোনারপুর থানা এলাকার রাজপুর পদ্মমণি গার্লস হাইস্কুলে। 

বৃহস্পতিবার ওই ছাত্রীর বিয়ে ঠিক করেছিল তার পরিবার। এ ব্যাপারে প্রথম থেকেই আপত্তি ছিল ওই কিশোরীর। কিন্তু পরিবার তাতে কর্ণপাত না করায় মঙ্গলবার বিষয়টি স্কুলের এক শিক্ষিকাকে জানায় সে। পরে ওই শিক্ষিকা মারফত স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকার কাছে লিখিত ভাবে পুরো বিষয়টি জানায় ওই ছাত্রী। এর পরেই স্কুলের তরফে বুধবার সোনারপুর থানায় বিষয়টি জানানো হয়। থানার পাশাপাশি রাজপুর-সোনারপুর পুরসভাকেও লিখিত ভাবে তা জানানো হয় স্কুলের তরফে। এর পরেই পরিবারের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টির নিষ্পত্তি করা হয়। 

ওই ছাত্রী জানায়, যার সঙ্গে তার বিয়ে ঠিক হয়েছিল, তার পরিজনেরা বিয়ের ব্যাপারে চাপ দিচ্ছিলেন। এমনকি, বিয়ে না করলে ছেলেটি আত্মহত্যা করারও হুমকি দিয়েছে বলে সেই পরিজনদের দাবি। তবে স্কুলের হস্তক্ষেপে বিয়ে বন্ধ হওয়ায় ওই ছাত্রী খুব খুশি। তার বাবা-মাকে পুলিশ এবং স্কুলের তরফে বোঝানো হয়েছে অল্প বয়সে বিয়ে না দিতে। ওই ছাত্রীর বাবা পেশায় ভ্যানচালক।