• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দলের তিন নেতাকে বহিষ্কার করল বিজেপি

BJP suspend
প্রতীকী ছবি

দলীয় সভায় হামলা চালানোর অভিযোগে বহিষ্কৃত হলেন বসিরহাটের তিন বিজেপি নেতা। রাজ্য বিজেপির এই সিদ্ধান্তে বসিরহাটে দলের অন্দরে চাপানউতোর শুরু হয়েছে। 

শুক্রবার বসিরহাট টাউনহলের পাশে দলীয় কার্যালয়ে বসিরহাট সাংগঠনিক জেলা সভাপতি তারক ঘোষকে পাশে নিয়ে বিজেপির রাজ্য সহ সভাপতি তথা জোনের পর্যবেক্ষক বিশ্বপ্রিয় রায়চৌধুরী বলেন, ‘‘গত মাসের ২৭ তারিখ দলীয় সভায় ঢুকে ভাঙচুর, উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করেন দলের তিনজন। দলের বিরুদ্ধাচারণ বরদাস্ত করা হবে না। রাজ্য সভাপতির আদেশ অনুসারে বসিরহাট সাংগঠনিক জেলার সহ সভাপতি দুলাল রায়, যুব মোর্চার বসিরহাট সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক মৃত্যুঞ্জয় কর্মকার ওরফে বিট্টু এবং পৌর মণ্ডল-১ সহ সভাপতি বিশ্বনাথ রক্ষিত ওরফে বিশুকে ৬ বছরের জন্য দল থেকে বহিষ্কার করা হল।’’ এখন থেকে ওই তিনজন দলের কোনও কর্মসূচিতে যোগ দিতে বা দলীয় পতাকা হাতে নিলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

সম্প্রতি বসিরহাট থানার সামনে একটি অনুষ্ঠান বাড়িতে বিজেপির সভা হয়। সেখানে হাজির ছিলেন বসিরহাট সাংগঠনিক জেলার সভাপতি তারক ঘোষ-সহ আরও কিছু নেতা। 

তাঁদের অভিযোগ, সভা চলাকালীন দুলাল রায়, মৃত্যুঞ্জয় কর্মকার এবং বিশ্বনাথ রক্ষিত বহিরাগতদের নিয়ে হামলা চালান। 

মৃত্যুঞ্জয় অবশ্য এ দিন গলায় দলের উত্তরীয় পরেই বলেন, ‘‘দল বহিষ্কার করলেও মন থেকে আমি বিজেপি আছি এবং থাকব। দলের রাজ্য সহ সভাপতি আমাদের বহিষ্কার করলেন, অথচ আমাদের বিরুদ্ধে কেন শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযাগ আনা হল, তার তদন্ত করলেন না।’’ 

তাঁর কথায়, ‘‘দলের মধ্যে থেকে যাঁরা ষড়যন্ত্র করছেন, তাঁদের তো আগে বহিষ্কার করা উচিত। যে-ই আমাদের বহিষ্কার করুক, আমরা কোনও ভাবেই দল ছাড়ব না।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন