• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সম্পর্কে ‘আপত্তি’, অ্যাসিড ছোড়ার নালিশ

acid attack
প্রতীকী ছবি।

সম্পর্ক রাখতে না চাওয়ায় এক মহিলাকে অ্যাসিড ছোড়ার অভিযোগ উঠেছে পূর্ব বর্ধমানের কালনা ২ ব্লকের সিদ্ধেশ্বরীতলা এলাকায়। জখম মহিলা কালনা মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। পুলিশ নদিয়ার রানাঘাটের শিবপুর থেকে সাধন বিশ্বাস নামে অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফারও করেছে। বছর পঁয়তাল্লিশের ওই মহিলার দাবি, ওই যুবক সম্পর্ক রাখার জন্য জোর করছিলেন। তিনি আপত্তি জানানোয় আক্রোশ তৈরি হয়। তার জেরেই এই হামলা।   বুধবার পেশায় বাস কন্ডাক্টর ওই যুবককে কালনা আদালতে তোলা হলে চার দিন পুলিশ হেফাজতে পাঠানো হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মাস পাঁচেক আগে সিদ্ধেশ্বরীতলা এলাকার একটি মাঠের কাছে টিনের বাড়ি তৈরি করে বসবাস শুরু করেন ওই মহিলা। একাই থাকতেন তিনি। ওই মহিলার দাবি, সাধনের সঙ্গে আগে ‘ঘনিষ্ঠতা’ ছিল তাঁর। কিন্তু করোনা-পরিস্থিতি, লকডাউনের সময় থেকেই আর যোগাযোগ রাখতে চাননি তিনি। সাধনকে সে কথা জানিয়ে এড়িয়েও চলতে শুরু করেন। কিন্তু ওই যুবক বারবার ফোন করতেন। ফোন না ধরায় আক্রোশ বাড়ে, দাবি অ্যাসিড আক্রান্তের।

মহিলার অভিযোগ, মঙ্গলবার বেলা পৌনে ১টা নাগাদ তাঁর  বাড়িতে এসে হাজির হন সাধন। কলতলায় কাজ করছিলেন তিনি। আচমকা পকেট থেকে বোতল বার করে সাধন তাঁর উপরে অ্যাসিড ছুড়ে দেন বলে অভিযোগ। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, মহিলার বাঁ হাতের একাংশ এবং চোখের উপরে চোট রয়েছে। সং‌শ্লিষ্ট পূর্ব সাতগাছিয়া পঞ্চায়েতের প্রধান তাপস সরকার বলেন, ‘‘এলাকায় নতুন একটি কলোনি তৈরি হচ্ছে। সেখানেই থাকতেন ভিন্‌ জেলা থেকে আসা ওই মহিলা। বিষয়টি পুলিশ দেখছে।’’

পুলিশের দাবি, ধৃত জেরায় তাদের কাছে অ্যাসিড হামলার কথা অস্বীকার করেছেন। তাঁর দাবি, ওই মহিলার সঙ্গে বহু বছর ধরে সম্পর্ক ছিল। এ দিন মিথ্যা অভিযোগে এলাকার লোকজন তাঁকে পুলিশের হাতে তুলে দেয় বলেও দাবি করেছেন তিনি। জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ধ্রুব দাস জানান, কী ধরনের অ্যাসিড, কোথা থেকে তা মিলেছে সমস্ত খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন