• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দুই নেতা গ্রেফতার, অবরোধে যুব মোর্চা

Burdwan
২ নম্বর জাতীয় সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ। বর্ধমানে। নিজস্ব চিত্র

বিজেপির রাজ্য যুব সভাপতি সৌমিত্র খাঁকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে জাতীয় সড়ক অবরোধ হল বর্ধমানে। অবরোধ হয় কাটোয়াতেও।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো পোস্টের অভিযোগে সংগঠনের নেতা বাপ্পা চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতারের প্রতিবাদে শনিবার সকালে আসানসোলে বিক্ষোভে যোগ দিতে গিয়েছিলেন বিজেপি সাংসদ তথা যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি সৌমিত্র খাঁ। পুলিশ সেখানে তাঁকে গ্রেফতার করে। এর প্রতিবাদে ২ নম্বর জাতীয় সড়কে বর্ধমানের উল্লাস মোড়ের কাছে বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা পথ অবরোধ করেন। টায়ার জ্বেলে রাস্তায় বিক্ষোভ দেখানো হয়। অবরোধের জেরে অনেক যানবাহন আটকে পড়ে। যানজট তৈরি হয়। প্রায় আধ ঘণ্টা অবরোধ চলার পরে, পুলিশ বিক্ষোভকারীদের হটিয়ে দেয়। কয়েকজনকে আটকও করা হয়। পুলিশ জানায়, তার পরে ধীরে-ধীরে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। 

কাটোয়ার মেঝিয়ারি গ্রামেও পথ অবরোধ করে বিজেপির যুব মোর্চা। শনিবার দুপুর ১২টা থেকে আধ ঘণ্টা কাটোয়া-মালডাঙা রোডে অবরোধ চলে। পূর্ব বর্ধমান জেলা যুব মোর্চার সভাপতি শুভদ্বীপ মাপদারের অভিযোগ, ‘‘রাজ্যের মানুষ বিজেপিকে সমর্থন করছেন দেখে শাসক দলের ইশারায় আমাদের দুই নেতাকে আসানসোলে পুলিশ হেনস্থা করেছে। এরই প্রতিবাদে আমরা অবরোধে শামিল হয়েছি।’’

এ দিন বিকেলে মন্তেশ্বরের মেমারি-মালডাঙা ও বর্ধমান-নবদ্বীপ রাস্তা অবরোধ কর্মসূচি নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিল বিজেপি। তবে তা আর করা হয়নি। দলের নেতা রাজেশ রায়ের দাবি, ‘‘সাংসদকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে অবরোধ কর্মসূচি নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু দুপুরে সাংসদকে মুক্তি দেওয়ায় তা বাতিল করা হয়।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন