• নিজস্ব  সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আয়ের পথ, পরিযায়ীকে জবকার্ড বিলি প্রশাসনের

job card
ভিন্ রাজ্য থেকে ফিরে আসা শ্রমিকদের হাতে ১০০ দিন কাজের জব কার্ড দেওয়া হচ্ছে। ছবি: দীপঙ্কর দে

লকডাউনে কাজ হারিয়ে ভিন্ রাজ্য থেকে বাংলায় ফিরে এসেছেন বহু পরিযায়ী শ্রমিক। গ্রামে ফিরে তাঁরা যাতে রোজগারের পথ খুঁজে পান, সেই জন্য তাঁদের হাতে ১০০ দিনের কাজে প্রকল্পের জবকার্ড তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার। সেইমতো হুগলি জেলায় পরিযায়ী শ্রমিকদের ওই প্রকল্পে শামিল করার কাজ শুরু হল বুধবার থেকে।

বুধবার সকালে হরিপালের বাসুবাটি পঞ্চায়েতে এক অনুষ্ঠানে এই জেলার পরিযায়ী শ্রমিকদের হাতে জবকার্ড বিলি প্রকল্পের সূচনা করেন জেলাশাসক। জেলা সভাধিপতি মেহেবুব রহমান, হরিপালের বিধায়ক বেচারাম মান্না প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। জেলা প্রশাসনের কর্তাদের আশা, এই ব্যবস্থায় প্রচুর মানুষ উপকৃত হবেন। যাঁরা লকডাউনের জন্য কাজের জায়গায় ফিরতে পারবেন না, এই প্রকল্পের মাধ্যমে তাঁদের সংসারে সুরাহা হবে।

জেলাশাসক ওয়াই রত্নাকর রাও বলেন, ‘‘আপাতত ১০ হাজার ১৭২ জন পরিযায়ী শ্রমিকের হাতে জবকার্ড দেওয়া হবে। পরিবারপিছু এক জন জবকার্ড পাবেন। বুধবার জেলার ১৮টি ব্লকের ৫ হাজার জনকে ওই কার্ড দেওয়া হয়েছে। বাকিদেরও দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।’’ পরবর্তী পর্যায়ে পরিস্থিতি বুঝে এবং আবেদনপত্র খতিয়ে দেখে জবকার্ডের সংখ্যা বাড়ানো হবে বলে তিনি জানান। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, হুগলিতে ২০৭টি পঞ্চায়েতে এত দিন পর্যন্ত মোট জবকার্ড ছিল ৭ লক্ষ ৩১ হাজার ৩৭০টি পরিবারের। এ বার তা বেড়ে হচ্ছে ৭ লক্ষ ৪১ হাজার ৫৪২টি।

জেলার বিভিন্ন পঞ্চায়েত সূত্রে জানা গিয়েছে, পরিযায়ী শ্রমিক ছাড়া অন্য অনেকেও জবকার্ড দাবি করছেন। পঞ্চায়েত পিছু এই সংখ্যা ৩০০-৪০০। এমনিতে প্রকল্পের আইন আনুযায়ী পরিবার পিছু একটি জবকার্ড দেওয়াই বিধি। কিন্তু এখন বহু পরিবার ভেঙে পৃথক হওয়ায় জবকার্ডের দাবি বাড়ছে। আবেদনপত্র খতিয়ে দেখে সঠিক উপভোক্তা বাছাই করতে হিমশিম খাচ্ছে সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েত এবং ব্লক প্রশাসন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন