অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করলেন বেতন না পাওয়া হাওড়া পুরসভার অস্থায়ী কর্মীরা। বুধবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত হাওড়ার পুর কমিশনার তথা প্রশাসকমণ্ডলীর চেয়ারপার্সনের ঘরের সামনে ছিলেন তাঁরা। দাবি, অবিলম্বে পাঁচ মাসের বেতন এবং চাকরির স্বীকৃতি দিতে হবে। 

তৃণমূল পরিচালিত হাওড়া পুরসভার মেয়াদ শেষ হওয়ার কয়েক মাস আগে ৪১৯ জন কর্মীকে চুক্তির ভিত্তিতে অস্থায়ী ভাবে নিয়োগ করা হয়। এর মধ্যে পুরবোর্ডের মেয়াদ শেষের পরে পুর কমিশনার বিজিন কৃষ্ণকে পুর প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ করে রাজ্য সরকার। 

দায়িত্ব নেওয়ার পরে তিনি জানিয়ে দেন, এই নিয়োগের কোনও বৈধতা নেই। তা ছাড়া অতিরিক্ত ৪১৯ জনকে বেতন দেওয়ার আর্থিক ক্ষমতাও পুরসভার নেই। বিষয়টি রাজ্য পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরকে জানানো হয়েছে। রাজ্য সরকার অর্থ অনুমোদন করলেই তাঁদের বেতন দেওয়া হবে। পুর প্রশাসকের এই সিদ্ধান্তে আতান্তরে পড়েন সেই কর্মীরা। বেতনের দাবিতে তাঁরা বারবার জেলার তৃণমূল নেতা-সহ পুরসভার তৃণমূল কর্মচারী সমিতির নেতাদের কাছে ঘুরলেও কোনও সুরাহা হয়নি বলে অভিযোগ। দেখা করেছেন পুর কমিশনারের সঙ্গেও। পুরসভার পক্ষ থেকে তাঁদের যেমন বেতন দেওয়া হয়নি, তেমনই কাজে না আসতেও বলা হয়নি বলে জানান তাঁরা। এ দিন পুর কমিশনার বলেন, ‘‘পুরো বিষয়টি রাজ্য সরকারের বিচারাধীন। রাজ্য সরকার যা সিদ্ধান্ত নেবে, তা-ই জানিয়ে দেওয়া হবে ওই কর্মীদের। কিন্তু এখনও কোনও নির্দেশ আসেনি।’’

 দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯