• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পুলওয়ামায় হত জওয়ানের বাড়িতে আজ রাজ্যপাল

dhankhar
রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ফাইল চিত্র।

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় আজ, মঙ্গলবার দুপুরে পুলওয়ামায় জঙ্গিহানায় নিহত সিআরপিএফ জওয়ান বাবলু সাঁতরার বাড়িতে আসছেন।

বাবলুর বাড়ি হাওড়ার বাউড়িয়ার চককাশীতে। রাজ্যপালের এই সফরের কথা জানিয়ে জেলা (গ্রামীণ) পুলিশের এক পদস্থ কর্তা বলেন, ‘‘আমাদের শুধু বলা হয়েছে রাজ্যপাল আসবেন, সে জন্য প্রস্তুত থাকতে। এর বেশি কিছু নয়।’’ বাবলুর পরিবারের তরফ থেকেও রাজ্যপালের সফরের বিষয়টি স্বীকার করা হয়েছে। তবে, এ বিষয়ে বাড়তি কোনও মন্তব্য করা হয়নি। 

সিআরপিএফ-এর কলকাতার ১৬৭ নম্বর ব্যাটেলিয়নের জওয়ান ছিলেন বাবলু। গত বছর ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গিহানায় বাবলু নিহত হন। ওই ব্যাটেলিয়নের পক্ষ থেকে আজ চককাশীতে রাজ্যপালের সফর উপলক্ষে যে ক’জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে তাঁদের মধ্যে রয়েছেন উলুবেড়িয়ার তৃণমূল সাংসদ সাজদা আহমেদও। সোমবার বিকেলে সিআরপিএফ-এর পক্ষ থেকে সাজদাকে ফোন করে রাজ্যপালের সঙ্গে থাকতে বলা হয়। এই তথ্য সাজদা নিজেই সংবাদমাধ্যমকে জানান। তবে আমন্ত্রণ তিনি অস্বীকার করেছেন বলে সাংসদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‘আমি ও আমার দল বাবলু নিহত হওয়ার দিন থেকে বাবলুর পরিবারের সঙ্গে আছি। রাজ্য সরকার, স্থানীয় পদাধিকারীরা নিয়মিত তাঁর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখেন। তাঁদের পাশে থাকেন। আমি একাধিকবার তাঁর বাড়িতে গিয়েছি। ফলে, আলাদা করে রাজ্যপালের সঙ্গে যাওয়ার দরকার আছে বলে মনে করি না।’’

একইসঙ্গে রাজ্যপালের এই সফরের সঙ্গে রাজনীতির যোগ আছে বলেও অনুমান করছেন সাজদা। তিনি বলেন, ‘‘সামনেই পুরভোট। এই সময়টিকে সফরের জন্য বেছে নেওয়ার পিছনে মনে হয় কোনও অভিসন্ধি রয়েছে। বাবলুর পরিবারের তরফ থেকে পুলওয়ামা কাণ্ডে জওয়ানদের নিরাপত্তার অভাব ছিল বলে অভিযোগ করা হয়েছিল। এই কাণ্ডে ধৃতেরা আবার সদ্য জামিন পেয়েছে। আশা করব এইসব বিষয়ে রাজ্যপাল বাবলুর পরিবারের কাছে সন্তোষজনক ব্যাখ্যা দেবেন।’’  

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন