• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জল জমার প্রতিবাদে অবরোধ হাওড়ায়

Water
দুর্ভোগ: হাওড়া পঞ্চাননতলার কাছে শ্রীবাস দত্ত লেনে বর্ষার জমে থাকা জল। বুধবার। ছবি: দীপঙ্কর মজুমদার

চলতি বর্ষার শুরু থেকেই হাওড়া পুরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে নিকাশি নিয়ে দুর্ভোগ চরমে উঠেছে। বুধবার তারই প্রতিবাদে বেনারস রোড অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান হাওড়া পুরসভার ন’নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, এক মাস ধরে বামনগাছি রোডের বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন হয়ে আছে। অল্প বৃষ্টিতেই এলাকায় জল জমে যাচ্ছে। সেই জল ঢুকে যাচ্ছে বাড়িতেও। সেই পচা জল থেকে ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ। আরও অভিযোগ, বড় পাম্প দিয়ে অন্য এলাকার নিকাশির জল ওই এলাকায় ফেলা হচ্ছে। তাঁদের দাবি, জমা জল না বেরোনোর এটিও বড় কারণ। 

নিকাশি নিয়ে অভিযোগ রয়েছে ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের শ্রীবাস দত্ত লেন, ২১ ও ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের অন্নদাপ্রসাদ শাস্ত্রী লেনের বাসিন্দাদেরও। সেখানেও পাঁকজল জমে আছে রাস্তায়। স্থানীয়দের অভিযোগ, পুরসভাকে জানিয়েও সমাধান হচ্ছে না।     

এ দিন তিন ঘণ্টা ধরে বেনারস রোড অবরোধ করায় তীব্র যানজটে স্তব্ধ হয়ে যায় এলাকা। লিলুয়া এবং ব্যাঁটরা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে তাদের বচসা বেধে যায়। পরে পুলিশ বুঝিয়ে অবরোধ তুললেও ৪৮ ঘণ্টায় সমাধান না হলে বিক্ষোভকারীরা বড় আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছেন।

আগেও নিকাশি নিয়ে দুর্ভোগের অভিযোগ উঠেছিল ৫০ নম্বর ওয়ার্ডের বালিটিকুরি নতুন পল্লি এলাকা থেকে। 

২১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা সমরেন্দ্র ওঝা জানান, প্রতি বর্ষায় এলাকায় জল জমলেও কয়েক দিন পরে নেমে যায়। কিন্তু এ বছর জল নামছে না। তার কারণ, সমস্ত নর্দমায় পলি জমে রয়েছে। সময়ে পলি না তোলায় এই সমস্যা বেড়েছে। হাওড়া পুরসভার এক কর্তা বলেন, ‘‘এ বছর কোভিড পরিস্থিতিতে নিকাশি সংস্কার ব্যাহত হয়েছে। এখন সেই কাজ চলছে। আশা করা যায় দ্রুত ওই ওয়ার্ডগুলির সমস্যা মিটে যাবে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন