• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জনসংযোগে বিমান, রক্তদানে বিরবাহা

Programme
অর্থ সংগ্রহ করছেন বিমান বসু (উপরে), রক্তদান কর্মসূচিতে বিরবাহা সরেন। নিজস্ব চিত্র

পুরভোটের দিন ঘোষণা এখনও হয়নি। তবে বসে নেই রাজনৈতিক দলগুলি। 

রবিবার ছুটির দিনে দলীয় তহবিল সংগ্রহে অরণ্যশহরের রাস্তায় হাঁটলেন বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বসু। অন্যদিকে, শহরের ১০ নম্বর ওয়ার্ডে দলের উদ্যোগে আয়োজিত এক শিবিরে রক্তদান করলেন জেলা তৃণমূলের সভানেত্রী বিরবাহা সরেন। বাড়ি বাড়ি প্রচারে গেল বিজেপিও।

এদিন ঝাড়গ্রাম বাজারের ক্রেতা, বিক্রেতা, ব্যবসায়ী ও পথ চলতি মানুষের থেকে অর্থ সংগ্রহ করেন বিমান। তাঁদের সমস্যার কথা জানতে চান। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানিয়ে দেন, ‘‘পুরভোটে তৃণমূল ও বিজেপিকে হারানোর জন্য যাঁরা প্রস্তুত রয়েছেন তাঁদের সঙ্গেই বোঝাপড়া করা হবে।’’ বিমানের কটাক্ষ, ‘‘পুরভোটের দিন এখনও ঘোষণা হয়নি। সেটা হয়তো জল মেপে করা হবে। তাই যখনই ভোট হোক না কেন, আগাম প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। পুরভোটে তরুণ প্রজন্মকে গুরুত্ব দেওয়া হবে।’’

এদিন সিপিএমের জেলা কার্যালয়ে দলের জেলা কমিটির বৈঠকও করেন বিমান। পরে জেলা বামফ্রন্টের বৈঠক করেন তিনি। সূত্রের খবর,  বাম-শরিকরা কে কোন আসনে লড়তে চান, সেই তালিকা তিনদিনের মধ্যে তৈরি করতে বলেন। 

অন্যদিকে ঘোড়াধরায় তৃণমূলের ১০ নম্বর ওয়ার্ড কমিটির কার্যালয়ে আয়োজিত রক্তদান কর্মসূচিতে বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগদানও হয়। বিরবাহা বলেন, ‘‘পুরবোর্ডের ক্ষমতায় এসে আমরা মানুষের প্রত্যাশা পূরণের যথাসাধ্য চেষ্টা করব। তৃণমূল পুরবোর্ডে না এলে এলাকার উন্নয়ন ব্যাহত হবে।’’  এদিন বিজেপিও বাড়ি-বাড়ি গিয়ে প্রচার করেছে। বিজেপি-র ঝাড়গ্রাম নগর মণ্ডলের সভাপতি নন্দন ঠাকুর জানান, তাঁরা পুরবোর্ডের ক্ষমতায় এসে কী করতে চান কর্মীরা সেটাই জানাচ্ছেন। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন