• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পাঁচ বিজেপি কর্মীর পুলিশ হেফাজত

med
প্রতীকী ছবি।

বেলিয়াবেড়ার কালিঞ্জায় তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষে পাঁচজনকে গ্রেফতার করে বুধবার আদালতে হাজির করল পুলিশ। বিজেপি-র দাবি, পুলিশ তাদের সক্রিয় কর্মীদের মিথ্যা অভিযোগে ধরেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতরা হলেন অশোক দণ্ডপাট, বিকাশ দোলাই, নন্দ খিলাড়ি, বালক ঘাটুই ও শ্রীমন্ত খিলাড়ি। অশোকের বাড়ি সোনাকনিয়া গ্রামে। বিকাশের বাড়ি কালিঞ্জা গ্রামে। নন্দ, বালক ও শ্রীমন্তের বাড়ি তেঘরা গ্রামে। তাঁদের তিনদিন পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। মঙ্গলবার বেলিয়াবেড়ার পেটবিন্ধি পঞ্চায়েতের কালিঞ্জায় তৃণমূল-বিজেপি-র সংঘর্ষের মাঝে জখম হন গোপীবল্লভপুর সার্কেলের পুলিশ ইন্সপেক্টর (সিআই) গৌতম চক্রবর্তী। তিনি এখন ঝাড়গ্রাম জেলা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ওই ঘটনায় তৃণমূল ও বিজেপি-র চার নেতা-কর্মী সহ কয়েকজনও জখম হন। 

স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার তৃণমূলের লোকজন কালিঞ্জায় শহিদ দিবস পালনের জন্য জড়ো হয়েছিলেন। বিজেপিও সেখানে জমায়েত করেছিল। পরিস্থিতি আঁচ করে আগেভাগেই সার্কেল ইন্সপেক্টর গৌতম চক্রবর্তীর নেতৃত্বে পুলিশ মোতায়েন ছিল সেখানে। পুলিশের সামনেই লাঠি, কোদাল নিয়ে মারামারি শুরু হয়। বিজেপি-র দুই নেতা সমীর খিলাড়ি ও স্বপন বেরা-সহ একশো জনের বিরুদ্ধে জামিন আযোগ্য ধারায় মামলা করে পুলিশ। এ ছাড়া এক তৃণমূল কর্মীও সমীর ও স্বপন-সহ ৪৪ জনের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ করেছেন। এদিন ওই দু’টি মামলায় ধৃত পাঁচ বিজেপি কর্মীকে আদালতে হাজির করানো হয়। পুলিশ জানিয়েছে, সমীর ও স্বপন চিকিৎসাধীন থাকায় তাঁদের গ্রেফতার করা যায়নি। 

এদিন আদালতে অভিযুক্তপক্ষের আইনজীবী তপন সিংহ অভিযোগ করেন, ‘‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। পুলিশের উপস্থিতিতেই বিজেপি কর্মীদের উপর সশস্ত্র হামলা হয়েছে।’’ তিনি জানান, বিজেপি-র পক্ষ থেকে বেলিয়াবেড়া ব্লক তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি কালীপদ সুর-সহ ৪৫ জন তৃণমূল নেতা-কর্মীর নামে থানায় অভিযোগ করা হলেও পুলিশ কোনও পদক্ষেপ করেনি। বিজেপি-র বেলিয়াবেড়া মণ্ডল সভাপতি শমিত পাত্রের দাবি, ‘‘পুলিশের উপস্থিতিতে আমাদের নেতা-কর্মীরাই আক্রান্ত হলেন। অথচ আমাদের লোকজনকেই গ্রেফতার করা হয়েছে।’’ অভিযোগ অস্বীকার করে বেলিয়াবেড়া ব্লক তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি কালীপদ সুর বলেন, ‘‘বিজেপি পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়ে এখন দৃষ্টি ঘোরাতে চাইছে।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন