শেষ প্রচারে পদযাত্রা, খেলা
বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অর্পিতা ঘোষের সমর্থনে এ দিন দেবদর্শনের সুযোগ মিলেছে বুনিয়াদপুরের বাসিন্দাদের। আগের দিন সেখানে নরেন্দ্র মোদীর সভা ঘিরে বিজেপি প্রচারে ঝড় তুলেছে।
Arpita

হাতেহাত: বুনিয়াদপুরে বালুরঘাটের তৃণমূল প্রার্থী অর্পিতা ঘোষের সমর্থনে অভিনেতা দেব। নিজস্ব চিত্র

রাত পোহালেই মালদহের দু’টি এবং দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট কেন্দ্রের নির্বাচন। তার আগে রবিবারই শেষ হল প্রচারের সময়। সব প্রার্থীরই প্রচারে জমজমাট ছিল দুই জেলাই।  

বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অর্পিতা ঘোষের সমর্থনে এ দিন দেবদর্শনের সুযোগ মিলেছে বুনিয়াদপুরের বাসিন্দাদের। আগের দিন সেখানে নরেন্দ্র মোদীর সভা ঘিরে বিজেপি প্রচারে ঝড় তুলেছে। তার জবাবে শেষ প্রচারে অভিনেতা দেবই ছিল তৃণমূলের ভরসা। বুনিয়াদপুর বাসস্ট্যান্ডের কাছে পথসভায় লোক ভিড় করে। ছিলেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী, পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবও। শুভেন্দু তার আগে উত্তর মালদহের প্রার্থী মৌসমের সমর্থনে মুচিয়া, সাহাপুরে রোড-শো করে এসেছেন। বুনিয়াদপুর থেকে ফের মালদহে ফিরে দক্ষিণ মালদহের প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেনের সমর্থনে রোড শো করেন রথবাড়ি এলাকায়।

মৌসম টোটোয় চেপে রতুয়ায় প্রচার র‌্যালি নিয়ে ব্যস্ত থেকেছেন দিনভর। মোয়াজ্জেমের হয়ে মানিকচক এবং ভূতনিতে একাধিক পথসভা করেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। দুদিন দিন আগে তাদের হয়ে প্রচারে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। 

উত্তর মালদহের কংগ্রেস প্রার্থী ইশা খান চৌধুরীর শে্ষ প্রচারে এদিন রাজস্থানের উপমুখ্যমন্ত্রী সচিন পাইলটের আসার কথা ছিল রতুয়ার সম্বর পুড়ে। গুয়াহাটি থেকে তার কপ্টার আসতে পারেনি। পরে বাগডোগরা থেকে তাকে ছাড়া হেলিকপ্টারে এসে সভা সামলায় কংগ্রেস নেতা বিপি সিংহ, শঙ্কর মালাকাররা। তাঁদের ফেরার সময় হেলিকপ্টারের একেবারে কাছে গিয়ে ভিড় জমান বাসিন্দারা। এখানেই সভার আগে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলেন ইশা খান। সেখানে তিনি মৌসমের বিরুদ্ধে আবার দলত্যাগ করার অভিযোগ তোলেন।

মালদহে কোতয়ালির আরেক মুখ তথা দক্ষিণ মালদহের কংগ্রেস প্রার্থী আবু হাসেম খান চৌধুরী ওরফে ডালু এদিন সুজাপুর, মানকচকে প্রচার সারেন। ওই কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থীর শ্রীরপা মিত্র চৌধুরী কখনও গাড়িতে রোড শো করেছেন, কখনও পায়ে হেঁটে ঘোরেন। সেখান থেকে মোথাবাড়ি, বৈষ্ণবনগর হয়ে বিকেলের দিকে কালিয়াচকে প্রচার শেষ করেন। সেখানে একটি মন্দিরে পুজো দেন। উত্তর মালদহে তাঁদের প্রার্থী খগেন মুর্মু এ দিন বামনগোলাতে রোড শো করেছেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়।

বালুরঘাটে বিজেপির পক্ষ থেকে অবশ্য কোনও মিছিল বা রোডশো করা হয়নি।  বিজেপি নেত্রী তথা অভিনেতা রূপা বালুরঘাটে সাংবাদিক বৈঠক করে অভিযোগ করেন, প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী কুরুচিকর মন্তব্যের জবাব মানুষ দেবেন।

২০১৪ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত