• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কুপন-বিভ্রাটে মারের অভিযোগ উপপ্রধানকে

agitation
অসন্তোষ: উপপ্রধান সমর মণ্ডলকে ঘিরে বিক্ষোভ। নিজস্ব চিত্র

ঘরে ফেরার তিন মাস পরেও মেলেনি রেশনের কুপন— মঙ্গলবার দুপুরে এমনই অভিযোগ তুলে গ্রাম পঞ্চায়েতে বিক্ষোভ দেখালেন পরিযায়ী শ্রমিকদের একাংশ। তৃণমূলের পঞ্চায়েতের উপপ্রধান ও প্রধানের স্বামীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে ক্ষুব্ধ শ্রমিকদের একাংশের বিরুদ্ধে। মালদহের ভুতনির উত্তর চণ্ডীপুর পঞ্চায়েতে।

ভিন্ রাজ্য ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিনামূল্যে রেশন ব্যবস্থা চালু করেছে প্রশাসন। খাদ্য সরবরাহ দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, জেলায় লক্ষাধিক কুপন বিলি করা হয়েছে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য। কুপনের বিনিময়ে রেশন থেকে খাদ্যসামগ্রী পাবেন তাঁরা। কুপন বিলি ঘিরে উঠছে একাধিক অভিযোগ। 

স্থানীয় সূত্রে খবর, কয়েক জন পরিযায়ী শ্রমিক এ দিন চণ্ডীপুর পঞ্চায়েত অফিসে বিক্ষোভ দেখান। সেই সময় পঞ্চায়েত অফিসে হাজির হন তৃণমূলের প্রধান বিউটি বিবির স্বামী আতিউর রহমান। তাঁকে দেখে উত্তেজিত পরিযায়ী শ্রমিকদের একাংশ হামলা চালান বলে অভিযোগ। অভিযোগ, আক্রান্ত হন উপপ্রধান সমর মণ্ডলও। পুলিশ গেলে ক্ষুব্ধ পরিযায়ী শ্রমিকেরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। আতিউর ও সমরকে স্থানীয় গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসা করানো হয়।‌

পরিযায়ী শ্রমিকদের উস্কানি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ওই পঞ্চায়েতের বিরোধী কংগ্রেস নেত্রী রুকসানা পারভিনের স্বামী কামাল হোসেনের বিরুদ্ধে।‌ সমর বলেন, ‘‘নিয়ম মেনেই পরিযায়ী শ্রমিকদের রেশনের কুপন বিলি করা হচ্ছে। রাজনৈতিক কারণে কামাল পরিযায়ীদের উস্কানি দিচ্ছেন। তার জেরেই এ দিন পঞ্চায়েতে পরিকল্পিত ভাবে হামলা চালানো হয়। থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।’’

অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন কামাল। তিনি বলেন, ‘‘প্রকৃত পরিযায়ী শ্রমিকেরা কুপন পাচ্ছেন না। বিনামূল্যের রেশন পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তাঁরা। তাই সকলে পঞ্চায়েতে হাজির হয়েছিলেন। নিজেদের দোষ ঢাকতে আমাদের উপরে দায় চাপানো হচ্ছে।’’ ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন মালদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীপক সরকার।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন