• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ঝলসে মৃত ট্রাকচালক

Truck
অঘটন: দুর্ঘটনার পরে সেই ট্রাক, ট্যাঙ্কার। কালিয়াচকে। নিজস্ব চিত্র

জ্বালানি গ্যাসের ট্যাঙ্কারের সঙ্গে ট্রাকের মুখোমুখি ধাক্কার জেরে আগুনে ঝলসে মৃত্যু হল এক চালকের। দুর্ঘটনায় আহত হন আরও দু’জন। মঙ্গলবার ভোরে মালদহের কালিয়াচক থানার সুলতানগঞ্জ এলাকায়। দুর্ঘটনার জেরে দীর্ঘক্ষণ ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে যান চলাচল থমকে ছিল। ঘন কুয়াশার মধ্যে দু’টি গাড়িই দ্রুতগতিতে চলার জেরে দুর্ঘটনা ঘটে বলে প্রাথমিক তদন্তে অনুমান। 

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম আসরাউল শেখ (৩০)। তিনি ঝাড়খণ্ডের মাধুয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। ঘটনায় গুরুতর আহত হন ওই রাজ্যেরই সাহেবগঞ্জের তারিকুল শেখ এবং উত্তরপ্রদেশের গাজিপুরের সত্যেন্দ্র রাজভর। আসরাউল ও তারিকুল ট্রাকে ছিলেন। সত্যেন্দ্র চালাচ্ছিলেন গ্যাসের ট্যাঙ্কার। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, জখম দু’জনের অবস্থাই আশঙ্কাজনক। মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে তাঁদের চিকিৎসা চলছে।

জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া বলেন, ‘‘দুর্ঘটনাগ্রস্ত দু’টি গাড়ি আটক করে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। মৃতদেহ ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে।’’ কুয়াশার মধ্যে আলো জ্বালিয়ে যান চলাচলের জন্য সচেতনতা প্রচারে জোর দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। 

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এ দিন ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ মুর্শিদাবাদের দিক থেকে মালদহের দিকে আসছিল গ্যাসের ট্যাঙ্কারটি। সেই সময় রায়গঞ্জের দিক থেকে মুর্শিদাবাদে যাচ্ছিল পণ্যবোঝাই ট্রাক। কালিয়াচকের সুলতানগঞ্জের পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন এলাকায় ঘন কুয়াশার মধ্যে দু’টি গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। দু’টি গাড়ির সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়। একই সঙ্গে ট্রাকের সামনের অংশে আগুন লেগে যায়। দুমড়ে থাকা ট্রাকে আটকে ঝলসে মৃত্যু হয় আসরাউল শেখের। অগ্নিদ্বগ্ধ হন তারিকুল। গ্যাস ট্যাঙ্কারের চালক সত্যেন্দ্রও আহত হন।

স্থানীয় বাসিন্দারা প্রথমে নিজেরাই আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। পরে মালদহ থেকে দমকলের একটি ইঞ্জিন গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে করে। আহতদের উদ্ধার করে পাঠানো হয় হাসপাতালে।

পুলিশ জানিয়েছে, দুর্ঘটনার জেরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকে সাড়ে ছ’টা পর্যন্ত যান চলাচল থমকে থাকায় যানজট হয়। 

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন সকাল ৬টা পর্যন্ত ঘন কুয়াশায় রাস্তায় কিছু দেখা যাচ্ছিল না। অভিযোগ, তার মধ্যেও দু’টি গাড়িই দ্রুতগতিতে যাচ্ছিল। তার জেরে চালকেরা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন